আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪:৫৪, ১৯শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৮শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

বৃষ্টির মতো যৌন নিপীড়নের অভিযোগ, নিজ প্রতিষ্ঠান থেকে বহিষ্কৃত হলিউড ঈশ্বর!

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : অক্টোবর ১১, ২০১৭ , ১২:১৩ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : বিনোদন
পোস্টটি শেয়ার করুন

একের পর এক যৌন নিপীড়নের অভিযোগের জেরে নিজের প্রতিষ্ঠান ‘দ্য ওয়েনস্টাইন কোম্পানি ’ থেকে বহিষ্কৃত হলেন হলিউডের অন্যতম বড় প্রযোজক হার্ভে ওয়াইনস্টাইন। অভিযোগকারীদের মধ্যে অ্যাশলে জুড, রোজ ম্যাকগোয়ানের মতো অভিনেত্রীরাও আছেন।
সর্বশেষ গতকাল জেনিফার লরেন্স এবং জর্জ ক্লুনিও যোগ দিয়েছেন অভিযোগকারীদের দলে। সব মিলিয়ে ৫০ জনেরও বেশি অভিনেতা-অভিনেত্রী ইতিমধ্যেই তার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন। যাদের মধ্যে কেট উইন্সলেট এবং অ্যাঞ্জেলিনা জোলির মতো অভিনেত্রীরাও রয়েছেন।

কিছু অভিযোগ ‘মিথ্যে ’ বলে দাবি করলেও বিভিন্ন সময়ে তাঁর আচরণে যে সহকর্মীরা আহত হয়েছেন, সে কথা স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন ওয়ানস্টাইন। নিজেকে ‘উন্নততর ’ করে তোলার জন্য থেরাপিস্টদের সাহায্য নিচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

‘শেক্সপিয়ার ইন লাভ ’, ‘দ্য কিংস স্পিচ ’, ‘পাল্প ফিকশন ’-এর মতো বিখ্যাত ছবি প্রযোজনা করেছেন ৬৫ বছরের ওয়েনস্টাইন। ২০১২-তে ‘গোল্ডেন গ্লোব ’ পাওয়ার পরে হলিউডের অন্যতম বড় ও ক্ষমতাশালী এই প্রযোজককে মেরিল স্ট্রিপের মতো অভিনেত্রী ‘গড ’ বলে অভিহিত করেছিলেন। ১৯৭০ দশকের শেষের দিকে ভাইয়ের সঙ্গে যৌথ ভাবে মিরাম্যাক্স প্রোডাকশন হাউজ খুলেছিলেন তিনি। পরে সেটি ডিজনির কাছে বিক্রি করে দেওয়া হয়।

নিজের এই ক্ষমতা অপব্যবহার করেই বহু অভিনেত্রীর সঙ্গে ওয়েনস্টাইন অশ্লীল আচরণ করেছেন বলে অভিযোগ। সিনেমায় সুযোগ পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতির বিনিময়ে নবাগতদের হোটেল রুমে ডাকতেন তিনি। সেখানে তাঁদের নানাভাবে হেনস্থা করতেন বলে অভিযোগ।

অ্যাশলে জানান, একবার কিছু ব্যবসায়িক কথাবার্তা বলার জন্য তাঁকে হোটেলে ডাকেন ওয়েনস্টাইন। অভিনেত্রীর কথায়, ‘ঘরে ঢুকে দেখি উনি বাথরোব পরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। আমাকে বললেন, হয় তাঁকে ম্যাসাজ করে দিতে হবে। নয়তো উনি স্নান করবেন এবং সেটা আমাকে দেখতে হবে। ’ হার্ভে ওয়েনস্টাইনের মতো বড় প্রযোজককে না চটিয়ে কীভাবে হোটেলের ঘর থেকে বেরোবেন, সেই চিন্তায় মূহ্যমান অ্যাশলে কোনওক্রমে নিস্তার পান সে দিন। সেসময় তার বয়স ছিল মাত্র ১৮।

বাকি অভিযোগকারীদের কেউ জানিয়েছেন, সিনেমায় কাজের সুযোগের বদলে শরীরী সম্পর্ক স্থাপন বা নারীদের সামনে সম্পূর্ণ উলঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়ে তাঁদের নিজের সামনে বসে থাকতে বাধ্য করতেন ওয়েনস্টাইন। এমনকি, কেউ কেউ তাঁর বিরুদ্ধে আঘাত করার অভিযোগও তুলেছেন। গত তিন দশক ধরে তাঁর বিরুদ্ধে এমন নানা অভিযোগ সামনে এসেছে। এই সময়ের মধ্যে আট জন নারীর সঙ্গে বোঝাপড়ায় পৌঁছন তিনি।

ওয়েনস্টাইন কোম্পানির বোর্ডের চার সদস্য, হার্ভের ভাই বব ওয়েনস্টাইন, লান্স মেরোভ, রিচার্ড কিনিগসবার্গ এবং টারাক বেন অ্যামার সম্প্রতি যৌথ বিবৃতি জারি করে জানান, গত কয়দিনে ওঠা অভিযোগের ভিত্তিতে বিখ্যাত প্রযোজককে সরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সংস্থার দায়িত্ব এখন বব এবং চিফ অপারেটিং অফিসার ডেভিড গ্লাসারের হাতে।

নিজের সংস্থা থেকে চাকরি খোয়ানোর পরে বিবৃতি জারি করে ওয়েনস্টাইন বলেন -‘আমার আচরণে অনেক সময় সহকর্মীরা আহত হয়েছেন। সে জন্য আমি ক্ষমাপ্রার্থী। আমাকে আরও ভালো হতে হবে। এ জন্য অনেকটা পথ পেরোতে হবে। আমি তা করবই। কথা দিলাম। এই সময়টা আমার নিজেকে চেনার, ভিতরের দানবটাকে মেরে ফেলার। এ জন্য থেরাপিস্টদের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। নিজের সংস্থা থেকে অনুপস্থিত থেকে এই সমস্যা আগে মেটাতে চাই। আমাকে দ্বিতীয় সুযোগ দেওয়া হোক। ’

তাঁর আইনজীবী লিসা ব্লুমও একটি বিবৃতি জারি করেন। ব্লুম সেখানে ওয়াইনস্টাইনের বিরুদ্ধে ওঠা অনেক অভিযোগ অসত্য বলে জানিয়েছেন। কিন্তু ওই প্রযোজকের যে নিজেকে আরও উন্নত করে তোলা দরকার , সে জন্য তিনি সব রকম চেষ্টা করছেন এবং প্রয়োজনে আইনজীবীর উপস্থিতিতে অভিযোগকারী মহিলাদের সঙ্গে আলোচনায় আগ্রহী , ব্লুম তা জানান। যদিও বিবৃতি জারির দিন কয়েক বাদে , গত শনিবার টুইট করেন- ‘হার্ভে ওয়েনস্টাইনের পরামর্শদাতার কাজ আমি ছেড়ে দিয়েছি। ’