আজ বৃহস্পতিবার বিকাল ৪:৫৬, ১৯শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ৪ঠা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৮শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

ঋণের বোঝা নিয়ে পুরোহিত দম্পতির ‘আত্মহত্যা’

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : অক্টোবর ১১, ২০১৭ , ১০:৫০ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : চট্টগ্রাম
পোস্টটি শেয়ার করুন

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ফকিরখীল এলাকায় মা মন্দেশ্বরী মন্দিরের পুরোহিত স্বপন দে ও তার স্ত্রী ঝিনু রাণীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা ও পুলিশের দাবি ঋণের টাকা দিতে না পারায় আত্মহত্যা করেছেন ওই দম্পতি। তারা ওই মন্দিরের পাশেই কুঁড়েঘরে থাকতেন।

মঙ্গলবার তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়। পুরানগড় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আ হ ম মাহাবুবুল হক এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান,পুরোহিত স্বপন দে এলাকার বিভিন্ন ব্যক্তির কাছে থেকে বিভিন্ন সময়ে প্রায় ১২ লাখ টাকা ধার নিয়েছেন। ওই এলাকার মানুষই বিভিন্ন বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার (এনজিও) কাছ থেকে ঋণ তুলে ওই দম্পতিকে দিয়েছেন। যারা ওই দম্পতিকে ধার দিয়েছেন তারাও দরিদ্র মানুষ। এখন ওই দম্পতির লাশ উদ্ধার হওয়ার পর এসব মানুষ মন্দিরে এসে কান্নাকাটি করছেন। ভেবে পাচ্ছেন না এ ঋণ কীভাবে শোধ করবেন।

সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল হোসেন জানান, ফকির খিল গ্রামে মা মন্দেশ্বরী মন্দিরটি ২০১০ সালে নির্মাণ করে সেখানে বসবাস করেন স্বপন দে। মন্দিরের পাশে একটি কুঁড়েঘরে থাকতেন পরিবার নিয়ে। তার এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। ছেলেকে প্রতিষ্ঠা, মেয়ের বিয়ে, মন্দির নির্মাণ, নিজের পরিবারের খরচসহ নানা ভাবে তিনি ঋণগ্রস্ত হয়ে পড়েন।

তিনি আরও বলেন, স্বপন দে’র মেয়ে বিবাহিত। ছেলে শহরে থাকে। ওই দম্পত্তি বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। প্রাথমিকভাবে অন্য কোনো আলামত পাওয়া যায়নি। দেনা শোধ করতে না পেরে আত্মহত্যার পথ বেছে নিতে পারেন।