২১, নভেম্বর, ২০১৮, বুধবার | | ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

খেঁজুরের ভেতর ইয়াবা পাচার, আটক ৪

আপডেট: নভেম্বর ৯, ২০১৮

খেঁজুরের ভেতর ইয়াবা পাচার, আটক ৪

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে খুরমা খেঁজুরের ভেতর ইয়াবা পাচারকালে ১ হাজার ৫০ পিস ইয়াবাসহ চারজন যাত্রীকে আটক করা হয়েছে।

শুক্রবার (৯ নভেম্বর) বিকেল সাড়ে তিনটায় শাহজাল বিমানবন্দরের গ্রীণ চ্যানেল পার হওয়ার সময় তাদের আটক করা হয়।

এসময় এক যাত্রীর কোমর থেকে ২১ টি প্লাস্টিক ও কালো টেপ দিয়ে বানানো নকল খুরমা খেজুর উদ্ধার করা হয়। পরে সেগুলো থেকে ১ হাজার ৫০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

শাহজালাল বিমানবন্দরে এপিবিএন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলমগীর হোসেন বিষয়টি বার্তাবাজার-কে নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আমাদের কাছে দুপুরেই খবর আসে কক্সবাজার থেকে ইয়াবা আসছে। যাদের আটক করা হয়েছে তারা দুপুর তিনটায় বাংলাদেশ বিমানে করে কক্সবাজার থেকে ঢাকায় পৌঁছেন। নামার পর তাদের আমরা তল্লাসি করতে চাইলে তাদের কাছে ইয়াবা থাকার বিষয়টি প্রথম দিকে অস্বীকার করে। পরে আমরা চ্যালেঞ্জ করলে রুবেল নামের একজনের প্যান্ট তল্লাসি করা হয়।’

তিনি বলেন, ‘এসময় তার পরনে থাকা আন্ডারওয়ার ও জুতার ভেতরে লুকিয়ে রাখা ২১ টি খুরমা খেঁজুর পাওয়া যায়। তবে সেগুলো দেখলে অবিকল খেঁজুরের মতো লাগে। পরে দেখা যায়, সেগুলো আসলে খুরমা খেঁজুর নয়। সেগুলো প্লাস্টিক আর কাগজে বানানে নকল খুরমা খেঁজুর।’

তিনি আরও বলেন, ‘রুবেলর কোমর থেকে উদ্ধার হওয়া ২১ টি নকল খেজুর থেকে পর্যায়ক্রমে ৫০ টি করে ১ হাজার ৫০ পিস ইয়াবা বেরিয়ে আসে। তবে বাকি তিনজনকে সন্দেহ হওয়ায় তাদের উত্তরা মেডিকেল হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। তাদের পেটের ভেতরে ইয়াবা থাকতে পারে বলে আমরা ধারণা করছি।’

আটককৃতদের মধ্যে রুবেলের গ্রামের বাড়ি নড়াইল সদরের লঙ্কারচর গ্রামে। তার বাবার নাম সাহেদ আলী। রুবেল কক্সাবাজার থেকে একজনের কাছ থেকে কিনে নিয়ে এসেছে। সে গ্রামে একজনের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।

অন্যদিকে জালাল ও নাহিদ শেখের গ্রামের বাড়ি কক্সবাজারে ও সাব্বির আহমেদের বাড়ি খুলনায়।