২১, নভেম্বর, ২০১৮, বুধবার | | ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০

ব্রিটিশ থেকে বাংলাদেশের স্ট্যাম্প, সব দলিল জাল করেন জুনু!

আপডেট: নভেম্বর ৮, ২০১৮

ব্রিটিশ থেকে বাংলাদেশের স্ট্যাম্প, সব দলিল জাল করেন জুনু!

শতাব্দী পুরনো ব্রিটিশ সরকারের ‘দুই-আনা’ থেকে শুরু করে বর্তমান বাংলাদেশের ৫ হাজার টাকা মূল্যমানের দলিল তৈরির স্ট্যাম্প, সবই আছে হারুন উর রশিদ প্রকাশ জুনু’র (৫০) কাছে। পুলিশের ভাষায় জুনু একজন ভয়ঙ্কর প্রতারক। যিনি এসব স্ট্যাম্প ব্যবহারে ভুয়া দলিল তৈরি করে নিরীহ মানুষ থেকে হাতিয়ে নিয়েছেন বিপুল পরিমাণ অর্থ।

বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) দুপুরে নগরের কোতোয়ালি থানার কোরবানীগঞ্জ এলাকা থেকে জাল দলিল তৈরির বিপুল উপকরণসহ এই প্রতারককে গ্রেফতার করে নগর গোয়েন্দা পুলিশ।

গ্রেফতার মো. হারুন-উর-রশিদ ওরফে জুনু চট্টগ্রাম নগরের পাঁচলাইশ থানার শুলকবহর এলাকার বাসিন্দা। তার কাছ থেকে বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা ও প্রতিষ্ঠানের ২৫৬টি সিলমোহর এবং প্রায় ২ হাজার দলিল তৈরির স্ট্যাম্প উদ্ধার করা হয়।

সিএমপির সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ‘গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতোয়ালি থানার কোরবানীগঞ্জ এলাকা থেকে প্রতারক হারুন-উর-রশিদ ওরফে জুনুকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় ভূমি, ঘর-বাড়ি, দোকান-পাটের মালিকানা সংক্রান্ত জাল দলিল তৈরির বিপুল উপকরণ জব্দ করা হয়েছে।’

‘এই প্রতারক দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন দাগের ভূমি, ঘর-বাড়ি, দোকান-পাটের মালিকানার জাল দলিল তৈরি করে আসছেন। ভুয়া মালিকানা তৈরি করে প্রকৃত মালিকের সঙ্গে প্রতারণার মাধ্যমে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার কাজ করতেন তিনি। অর্থের বিনিময়ে যে কারও জন্য ভুয়া মালিকানার দলিলও তৈরি করে দিতেন তিনি। সবচেয়ে অবাক করা বিষয় হলো, শতাব্দীকাল আগের ব্রিটিশ সরকারের ‘দুই-আনা’ থেকে শুরু করে বর্তমান বাংলাদেশের ৫ হাজার টাকা মূল্যমানের দলিল তৈরির স্ট্যাম্প আছে প্রতারক হারুন-উর-রশিদ ওরফে জুনু’র কাছে।’

তিনি আরও জানান, উদ্ধার হওয়া জাল সিলমোহর এবং দলিল তৈরির স্ট্যাম্পগুলো পরীক্ষা করা হচ্ছে। এসব দুর্লভ স্ট্যাম্প তার কাছে কীভাবে এলো তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করা হয়েছে।