আজ মঙ্গলবার সকাল ৯:৫৮, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ২রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

লিটনের দারুণ ক্যাচে ফিরলেন ডিকভেলা

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : মার্চ ১০, ২০১৭ , ৩:৪৮ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

গল টেস্টে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার লিড ৪০০ পেরিয়েছে।

চতুর্থ দিন, চা বিরতি 

শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ইনিংস: ৬৪ ওভারে ২৪৭/৫। ব্যাট করছেন দিনেশ চান্দিমাল (৩৭), দিলরুয়ান পেরেরা (১৯)।

ফিরে গেছেন: নিরোশান ডিকভেলা (১৫), আসেলা গুনারত্নে (০), উপুল থারাঙ্গা (১১৫), কুশল মেন্ডিস (১৯), দিমুথ করুনারত্নে (৩২)।

শ্রীলঙ্কার লিড: ৪২৯ রান।

লিটনের দারুণ ক্যাচে ফিরলেন ডিকভেলা: মেহেদী হাসান মিরাজের বলে রিভার্স সুইপের চেষ্টা করেছিলেন নিরোশান ডিকভেলা। বাঁদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে দারুণ এক ক্যাচ দেন উইকেটকিপার লিটন কুমার দাস। শ্রীলঙ্কার স্কোর তখন ৫ উইকেটে ২২২।

শ্রীলঙ্কার লিড ছুঁল চার শ: ৬০তম ওভারে সাকিব আল হাসানের বলে দিনেশ চান্দিমাল হাঁকান চার। তাতে শ্রীলঙ্কার লিড ছোঁয় ৪০০ রান।

সাকিবের বলে বোল্ড গুনারত্নে: আগের ওভারে সেঞ্চুরিয়ান উপুল থারাঙ্কাকে বোল্ড করেছিলেন মেহেদী হাসান মিরাজ। পরের ওভারে নতুন ব্যাটসম্যান আসেলা গুনারত্নেকে বোল্ড করেন সাকিব আল হাসান। লঙ্কান ব্যাটসম্যান মারেন ডাক। শ্রীলঙ্কার স্কোর তখন ৪ উইকেটে ১৯৯।

সেঞ্চুরির পর মিরাজের শিকার থারাঙ্গা: প্রথম দুই বলে টানা দুই চার মেরেছিলেন। তবে চতুর্থ বলে উপুল থারাঙ্গাকে বোল্ড করেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১৭১ বলে ১১ চার ও ২ ছক্কায় ১১৫ রান করেন ৩২ বছর বয়সি ব্যাটসম্যান থারাঙ্গা। শ্রীলঙ্কার স্কোর তখন ৩ উইকেটে ১৯৮।

থারাঙ্গার তৃতীয় সেঞ্চুরি: সাকিবের বলে সিঙ্গেল নিয়ে ১৬৪ বলে সেঞ্চুরি পূর্ণ করেন উপুল থারাঙ্গা। তিন অঙ্ক ছুঁতে তিনি চার হাঁকান ৯টি, ছক্কা একটি। এটি তার ক্যারিয়ারের তৃতীয় টেস্ট সেঞ্চুরি।

মেন্ডিসকে ফেরালেন সাকিব: লাঞ্চের পর বাংলাদেশকে সফলতা এনে দেন সাকিব আল হাসান। বাঁহাতি স্পিনারের বলে স্লগ শট খেলতে গিয়ে স্কয়ার লেগে তাসকিন আহমেদের হাতে ধরা পড়েন লঙ্কান ডানহাতি ব্যাটসম্যান কুশল মেন্ডিস (১৯)। শ্রীলঙ্কার স্কোর তখন ২ উইকেটে ১৩৪, লিড ৩১৬।

প্রথম সেশনে প্রাপ্তি তাসকিনের উইকেট: চতুর্থ দিনের প্রথম সেশনে ১ উইকেট হারিয়ে ৮৭ তোলে শ্রীলঙ্কা। শ্রীলঙ্কার লিড তখন ২৬৯ রানের। উপুল থারাঙ্গা ৪০ ও কুশল মেন্ডিস ৮ রান নিয়ে লাঞ্চ বিরতিতে যান। বাংলাদেশের একমাত্র সাফল্য আসে তাসকিনের হাতে ধরে। তার বলে মাহমুদউল্লাহকে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন দিমুথ করুনারত্নে।

উদ্বোধনী জুটি ভাঙলেন তাসকিন: ব্যক্তিগত ৭ রানে একবার ক্যাচ দিয়ে বেঁচে গিয়েছিলেন। তবে দ্বিতীয়বার ক্যাচ তুলে আর বাঁচতে পারেননি করুনারত্নে। ২৩তম ওভারে তাসকিন আহমেদের মিডল স্টাম্পের লেংথ বল তুলে মারেন লঙ্কান বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। ডিপ স্কয়ার লেগে কয়েক পা দৌড়ে দারুণ এক ক্যাচ নেন মাহমুদউল্লাহ। ৭৩ বলে ৩২ করে ফেরেন করুনারত্নে, ভাঙে শ্রীলঙ্কার ৬৯ রানের উদ্বোধনী জুটি।

করুনারত্নের ক্যাচ ফেললেন সাকিব: চতুর্থ দিনের শুরুতে টেন স্পোর্টসকে সাকিব আল হাসান বলেছিলেন, সকালের সেশনটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ, দ্রুত উইকেট তুলে নিতে হবে। কিন্তু সেই সাকিবই দিনের ষষ্ঠ ওভারে ক্যাচ ফেলেন দিমুথ করুনারত্নের। অফ স্পিনার মেহেদী হাসান মিরাজের বল বেরিয়ে এসে তুলে মেরেছিলেন করুনারত্নে। শর্ট কাভারে সাকিব বলে হাত ছুঁইয়েও বল জমাতে পারেননি। করুনারত্নের রান তখন ৭, শ্রীলঙ্কার ১৩।

১৮২ রানের লিড নিয়ে ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কা: প্রথম ইনিংসে ১৮২ রানের লিড নিয়ে চতুর্থ দিন নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিংয়ে নামে শ্রীলঙ্কা। ইনিংস উদ্বোধন করতে নামেন দিমুথ করুনারত্নে ও উপুল থারাঙ্গা।

১৫ মিনিট এগিয়ে দিন শুরু: তৃতীয় দিনের শেষ সেশন বৃষ্টিতে ভেসে গেছে। আজ চতুর্থ দিনের খেলা তাই ১৫ মিনিট এগিয়ে স্থানীয় সময় সকাল পৌনে ১০টায় (বাংলাদেশ সময় সোয়া ১০টা) শুরু হয়েছে। দিনের শেষ সেশনও ১৫ মিনিট বাড়ানো হয়েছে। দিনে খেলা হবে মোট ৯৮ ওভার।

দ্রুত উইকেট চান সাকিব:  চতুর্থ দিনের খেলা শুরুর আগে টেন স্পোর্টসকে সাকিব আল হাসান বলেন, ‘সকালে আমাদের ভালো বোলিং করতে হবে। প্রথম সেশনটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের দ্রুত উইকেট তুলে নিতে হবে। অথবা ওদের আটকে রাখতে হবে। আমি মনে করি, এটা ভালো ব্যাটিং পিচ ছিল। আমাদের আরো ১০০-১৫০ রান করা উচিত ছিল। সেট হওয়া ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরি করতে পারেনি, টেস্ট ক্রিকেটে এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে এটা এখনো ভালো পিচ আছে। আমি মনে করি, আমরা দ্বিতীয় ইনিংসে ভালো ব্যাটিং করতে পারব।’

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস: ৪৯৪

বাংলাদেশ প্রথম ইনিংস: ৩১২