আজ সোমবার সকাল ৬:৩৫, ২৩শে অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ৮ই কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২রা সফর, ১৪৩৯ হিজরী

জেনে নিন, বয়সে বড় মেয়েদের বিয়ে করলে কি হয় !

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৭ , ৭:১৯ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : আলোচিত খবর,জীবনযাত্রা
পোস্টটি শেয়ার করুন

বয়সে ছোট মেয়েকেই স্ত্রী হিসেবে পেতে চান বেশির ভাগ মানুষ। এর পেছনে অনেক যুক্তিও দেখান তারা। কিন্তু জানেন কি বয়সে বড় মেয়েকে স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করার কতো লাভ আছে। এর উদাহরণও রয়েছে।

অভিষেক-ঐশ্বরিয়া থেকে সচিন-অঞ্জলি, তরকা জগতে বয়সে বড় মেয়েকে স্ত্রী হিসাবে গ্রহণ করার উদাহরণ ভুরিভুরি।

তবে শুধুই সেলিব্রেটি নয়, আজকাল নিজেদের আশেপাশে একবার চোখ মেললেই এমন উদাহরণ প্রায়ই দেখা যায়।

বয়সে বড় মেয়েরা স্বাভাবিকভাবেই ছোট মেয়েদের তুলনায় অনেক ভালোভাবে গুছিয়ে কথা বলতে পারে। যা ছেলেদের আকৃষ্ট করে বেশি।

বয়সে বড় মেয়েরা ছোটদের মতো তুচ্ছ বিষয় নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন না। তাদের কনফিডেন্স ছেলেদের আকৃষ্ট করে।

অনেক সময়ই দেখা যায় বয়সে বড় হওয়ায় এই সমস্ত মেয়েরা স্বাবলম্বী হয়। ফলে সবসময় ছেলেদের পকেটেই টান পড়ে না। কিছু সময় মেয়েরাও আর্থিক দিকটি সামলে নেন।

ছেলেমানুষি কম থাকে। ফলে এই মেয়েরা কথায় কথায় ঝগড়াঝাঁটি, কান্নাকাটি বা পাবলিক প্লেসে ভুলভাল আচরণ কম করে।

এই মেয়েরা অনেক বেশি বুঝদার হন এবং জীবনের সমস্যাগুলো গুরুত্ব দিয়ে বিচার করেন।

বড় মেয়েরা আপনাকে বলবে ছোট সমস্যাগুলো হাল্কাভাবে নিতে। শেখাবে কীভাবে বড় বড় সমস্যাগুলোও সহজে সমাধান করতে হয়।

অনেক পুরুষই শারীরিক সম্পর্কে অভিজ্ঞ বা পরিণত মহিলাদের বেশি পছন্দ করেন।

এই ধরনের মেয়েদের সঙ্গে প্রেম করার অনেক সুবিধা রয়েছে। তারা অনেক পরিণতমনস্ক হয়। তাই দাম্পত্য জীবনে বোঝাপড়াতেও সুবিধা হয়।

পরিণত বয়সের হওয়ায় এই মেয়েরা কোনো কিছু নিয়েই জীবনে খুব একটা চাপ নেয় না। আর স্বভাবে শান্ত হয়। আর এ ধরনের মহিলাদের অনেক পুরুষই পছন্দ করেন।

সাধারণত এই মেয়েরা আপনাকে বিচার না করে বুঝতে চেষ্টা করে। কীভাবে জীবনে ভারসাম্য বজায় রেখে চলতে হয় তাও শেখায়।

এই মেয়েরা চট করে কোনো সিদ্ধান্ত না নিয়ে আপনার সব কথা মনে দিয়ে শোনে।
আপনার চেয়ে বড় হওয়ায় সে বুঝতে পারে কোনো সম্পর্ক বা সিদ্ধান্তের জন্য ভবিষ্যতে আপনাকে কষ্ট পেতে হতে পারে।