২৩, জুলাই, ২০১৮, সোমবার | | ১০ জ্বিলকদ ১৪৩৯

কোম্পানীগঞ্জে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে চেয়ারম্যান কন্যার বাল্যবিবাহ পন্ড

আপডেট: মে ১০, ২০১৮

কোম্পানীগঞ্জে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে চেয়ারম্যান কন্যার বাল্যবিবাহ পন্ড

মোঃ ওয়ালিদ সাকিব, কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যানের মেয়ের বাল্য বিবাহ রুখে দিলো উপজেলা প্রশাসন ১০ মে বৃহস্পতিবার দুপুর ১টায় উপজেলার চরএলাহী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবদুল মতিন তোতার বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়,চর এলাহী ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল মতিন তোতা’র মেয়ের বাল্য বিবাহের আয়োজন চলছে। এমন খবর পেয়ে ওই বাড়িতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে হাজির হলো উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.মাহফুজুর রহমান ও উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মো.নুরনবী।

এদিকে কনের পিতা সাবেক চর এলাহী ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মতিন তোতা প্রথমে অস্বীকার করলেও পরে স্বীকার করেন বিয়ের বিষয়ে।

এসময় বাল্য বিবাহের আনুষ্ঠানিকতা বন্ধে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে মৌখিক ভাবে সতর্ক করা হয়। প্রশাসনের উপস্থিতিতে ১৮ বছর হওয়া ছাড়া কনের বিবাহ হচ্ছেনা এমন মৌখিক স্বীকারত্তি প্রদান করেন কনের পিতা ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান তোতা। প্রশাসন বর পক্ষের লোকজনের জন্য রান্না করা খাওয়ার গুলো উদ্ধার করে স্থানীয় মাদ্রাসার এতিম ছাত্রছাত্রীদের মাঝে বিতরণের নির্দেশ দেন।

এই বিয়ের কনের বয়স ১৪ বছর আর বরের বসয় ৩৮ বছর। এদিকে বর যাত্রীকে ফিরে যেতে হলো শূন্য হাতে।