১৫, আগস্ট, ২০১৮, বুধবার | | ৩ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯

লালপুরে আ’লীগ নেতার মুক্তির দাবীতে ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট ও মানববন্ধন

আপডেট: আগস্ট ১২, ২০১৮

লালপুরে আ’লীগ নেতার মুক্তির দাবীতে ব্যবসায়ীদের ধর্মঘট ও মানববন্ধন

প্রভাষক মোঃ জয়নাল আবেদীন, নাটোর প্রতিনিধি: নাটোরের লালপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য, উপজেলা মোড় বণিক সমিতির সভাপতি ও লালপুর সাব রেজিস্ট্রি অফিসের দলিল লেখক সমিতির সভাপতি ফিরোজ আল হক ভূঁইয়ার নামে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার এবং তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবীতে মানববন্ধন ও ধর্মঘট কর্মসূচী পালন করেছে উপজেলা মোড় বণিক সমিতি ও দলিল লেখক সমিতি ।

রবিবার (১২ আগষ্ট) সকাল সাড়ে দশটার দিকে লালপুর উপজেলা পরিষদের সামনে নাটোর-লালপুর প্রধান সড়কে যৌথভাবে এই মানববন্ধন কর্মসূচী অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইসলাম রান্টু, হাতেম আলী, জাফর আলী প্রমূখ। এদিকে সকাল ৬ টা থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত উপজেলা মোড়ের ব্যবসায়ীরা ধর্মঘট পালন করে।

বক্তারা বলেন, মাদক ব্যবসা, মাদক সেবন, চাঁদাবাজ ও বিভিন্ন অসামাজিক কাজের সাথে সম্পৃক্ত আলমগীর হোসেন মিঠু নামের এক চিহ্নিত সন্ত্রাসীর কার্যকলাপের প্রতিবাদ করায় আলগীর হোসেন ৯ আগস্ট উল্টো ফিরোজ আল হক ভূঁইয়ার নামেই লালপুর থানায় একটি চাঁদাবাজির মামলা করে। পুলিশ ফিরোজ আল হক ভূঁইয়াকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। তারা অবিলম্বে আওয়ামীলীগ নেতা ফিরোজ আল হক ভূঁইয়ার নামে করা মিথ্য মামলা প্রত্যাহার এবং অবিলম্বে তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবী করেন। সেই সাথে এহেন ঘটনার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান।
অপরদিকে দলিল লেখক সমিতির ব্যানারে তাদের নেতা ফিরোজ আল হক ভূঁইয়া’র মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত অনির্দিষ্ট কালের জন্য কলম বিরতি কর্মসূচী ঘোষণা করে। ফলে রবিবার দলিল লেখকরা তাদের কাজে যোগ না দেওয়ায় দুপুর পর্যন্ত উপজেলায় কোন দলিল রেজিস্টারী হয়নি।
দলিল লেখক হৃদয় ইসলাম হায়দার ও রবিউল ইসলাম রিপন সহ একাধিক দলিল লেখক জানান, ফিরোজ আল হক ভূঁইয়ার মুক্তি না হওয়া পর্যন্ত তার কাজে যোগ দেবেন না।

এ ব্যাপারে উপজেলা সাব-রেজিস্টার ওবায়েদ উল্লাহ জানান, অফিসের কাজকর্ম স্বাভাবিক রয়েছে। দলিল রেজিস্টারীর কাজ সাধারণত বিকেলের দিকে বেশী হয়। তাই কোন দলিল রেজিস্টারী হয়নি একথা এখনই (২.৩০ মি.) বলা যাবে না।