১৯, ডিসেম্বর, ২০১৮, বুধবার | | ১০ রবিউস সানি ১৪৪০

অমৃতাকে বিছানায় ডেকেছেন ডিপজল?

আপডেট: আগস্ট ১২, ২০১৮

অমৃতাকে বিছানায় ডেকেছেন ডিপজল?

কাস্টিং কাউচ তথা যৌন হয়রানির কথা নতুন কিছু নয়। হলিউডে #MeToo এর মধ্য দিয়ে ছড়িয়ে পড়ে প্রতিবাদ। বলিউডে তার প্রভাব পড়েছিল। প্রতিবাদি হয়েছিলেন বেশ কয়েকজন অভিনেত্রী। সে প্রভাব বাংলাদেশের চলচ্চিত্রেও পড়েছে।

ঘটনা, ২০১৭ সালের শুরুতেই মনোয়ার হোসেন ডিপজলের প্রযোজনায় ‘এক কোটি টাকা’ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন এই নায়িকা। বেশ ঢাকধোল পিটিয়ে হয়েছিল ছবির মহরতও।

কিন্তু ওই বছরই ছবির শুটিং শুরুর আগে অমৃতাকে সিনেমা থেকে বাদ দেন ডিপজল। পরে সে ছবিতে অমৃতার স্থলাভিষিক্ত করা হয় আরেক নায়িকা শিরিন শিলাকে। তবে অজানা থেকে যায়, সে বাদ পড়ার কাহিনী।

মূলত, বাদ পড়ার বিষয় নিয়ে কোন ব্যাখ্যা দেননি অমৃতা। তখন নিজের ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে অমৃতা শুধু এই লিখেছিলেন, আমাকে কেন বাদ দেয়া হলো তা নিজেও বুঝতে পারিনি।

এদিকে তার কয়েকদিন পর অমৃতা ফেসবুকে আরেকটি স্ট্যাটাসে দেন। সেখানে তিনি লেখেন, সম্মানের সঙ্গে কাজ করতে চাই। তার জন্য যদি ১০০ ছবি থেকে বাদ পড়ি, তাহলেও সমস্যা নেই। সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।

ব্যাস! এই স্ট্যাটাসটি মুহূর্তে ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে! অনেকে এটি পড়ে অভিযোগ তুলেছেন ডিপজলের দিকে। সে সমালোচনায় শোনা গেছে, ছবিতে কাজ করতে হয়ত ডিপজল খারাপ প্রস্তাব দিয়েছিলেন। তারা গুঞ্জন তুলেছেন, হয়ত অমৃতাকে তার সঙ্গে বিছনায় যেতে বলা হয়েছে। কিন্তু অমৃতা রাজি হননি বলে শিরিন শিলাকে নেয়া হয়েছে।

সে ব্যাপারটি নিয়ে পুরোপুরি মুখে কুলূপ এঁটেছেন অমৃতা। এই ব্যাপারে তখনো-এখনো কিছু বলতে চান না তিনি। বিষয়টি দুই বছর পরে এসেও এখনো ধোঁয়াশাই রয়ে গেলো।

এদিকে, অনেকদিন ধরে আলোচনায় নেই চিত্রনায়িকা অমৃতা খান। নতুন কাজের খোঁজ খবরও নেই তার। এর আগে একাধিকবার নেতিবাচক কারণে খবরের শিরোনাম হয়েছিলেন তিনি। বছর খানেক ধরে কোনো ধরনের খবরেই নেই তারা। তাহলে এখন কী করছেন অমৃতা?

বিষয়টি জানতে নায়িকার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হয়। কিন্তু ফোনে পাওয়া যায়নি তাকে। পরে অমৃতার মা দিলারা ইসলামের সঙ্গে কথা হয়।

তিনি বলেন, চলতি বছরের জানুয়ারিতে অমৃতার ‘এ লেভেল’ পরীক্ষা ছিল, তা শেষ হয়েছে। গত মে মাসে আবার পরীক্ষা ছিল তার। সেটিও শেষ হয়েছে। চলতি বছরের পুরো সময়টা সে লেখাপড়ায় মনোযোগ দিয়েছে। দু’বেলা কোচিংও করেছে।

এখন সে নিজেকে প্রস্তুত করছে। এরপর পুরোদমে তাকে কাজে দেখতে পাবেন। তবে আমার মেয়েটি এখনো ছোট। তাই অনেক কিছু এখনো বুঝে উঠতে পারেনি সে।

এদিকে, ২০১৫ সালে অমৃতা অভিনীত প্রথম ছবি ‘গেম’ মুক্তি পেয়েছিলো। এরপর ‘গুণ্ডা দ্য টেরোরিস্ট’ ও ‘পাগলা দিওয়ানা’ নামের দুই ছবি মুক্তি পায় ২০১৬ সালে। এই ছবিতে সাফল্য তো পাননি তিনি, উল্টো অভিযোগ তুলেছিলেন পরিচালকের বিরুদ্ধে। জানিয়েছিলেন, তাকে যেভাবে উপস্থাপন করার কথা ছিল, সেভাবে দর্শকরা দেখেননি।

অমৃতা অভিনীত ‘টার্গেট’ ও ‘ময়না পাখির সংসার’ নামের দুইটি ছবি রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়। গেলো বছরই জানানো হয়েছিল, দুই ছবির কাজ শেষ হয়েছে। কিন্তু বছর গড়িয়ে গেলেও সে ছবিগুলোরও দেখা মেলেনি আর।

তবে এই নিয়ে অমৃতার কোন আক্ষেপ নেই বলে জানান মা দিলারা ইসলাম। তিনি বলেন, ছবির কাজ শেষ হয়েছে শুনেছি। কবে মুক্তি পাবে এটা পরিচালক-প্রযোজকরা ভালো বলতে পারবেন। ওর কাজের কথা ছিল, ও কাজ করেছে।