১৩, ডিসেম্বর, ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৪ রবিউস সানি ১৪৪০

গৃহবধুকে ধর্ষণ চেষ্টা, মামলা নিচ্ছেনা পুলিশ

আপডেট: আগস্ট ১২, ২০১৮

গৃহবধুকে ধর্ষণ চেষ্টা, মামলা নিচ্ছেনা পুলিশ

শামসুজ্জোহা বাবু, রাজশাহী থেকে।

রাজশাহীর বাঘায় সম্রাট নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু পরিবারের এক গৃহবধুকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ৫ দিন আগে ওই পরিবারের গৃহবধূ সম্রাটের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন।

মঙ্গলবার (৭ তারিখ) রাতে উপজেলার কিশোরপুর হিন্দুপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। এদিকে অভিযোগ দায়েরের পর থেকে সম্রাটসহ তার পরিবারের লোকজন মাদকদ্রব্য দিয়ে মামলার ভয়ভীতি দেখাচ্ছে বলে জানিয়েছেন সংখ্যালঘু ওই পরিবারটি। কিন্তু পুলিশের রহস্যজনক ভুমিকায় আজো মামলাটি রেকর্ড করা হয়নি। পুলিশ বলছে স্থানীয় ভাবে মিমাংসার কথা বলায় মামলা রেকর্ড করা হয়নি।

জানা যায়, এদিন রাতে গৃহবধূর স্বামী বাড়িতে ছিলেন না। রাত প্রায় সাড়ে ১১টায় প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিয়ে বাইরে বের হোন গৃহবধূ। এসময় ঘরের মধ্যে প্রবেশ করে পাশের বাড়ির যুবক সম্রাট। বিষয়টি গৃহবধূর দৃষ্টিতে না আসায় দরজা লাগিয়ে শুয়ে পড়েন।

এসময় ঘরের ভেতরে থাকা যুবক সম্রাট গামছা দিয়ে মুখ বেঁধে, চিৎকার না করারর জন্য দেশীয় অস্ত্র ধারালো ছোরা বের করে প্রাণ নাশের ভীতি প্রদর্শন করে। পরে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় আঘাপ্রাপ্ত হয়ে তার শরীর ছিলে যায়। প্রায় আধা ঘন্টা ধ্বস্তা-ধ্বস্তির এক পর্যায়ে বাড়িতে প্রবেশ করে দরজা খুলতে বলে গৃহবধূর স্বামী বাবু। এসময় দরজা খুলে কৌশলে পালিয়ে যায় সম্রাট। সে একই গ্রামের আজিজের ছেলে।

গৃহবধূ জানান, ঘটনার রাতে তার স্বামী বাড়িতে ছিলেন না। কাঠ মিস্ত্রীর সুবাদে পাশের এক গ্রামে চুক্তি নিয়ে কাজ করেন। কোন দিন আসেন আবার কোনদিন আসেন না। ঘটনার রাতে এসেছিলেন রাত আনুমানিক ১২ টার দিকে। স্বামীর ডাক শুনা মাত্রই তাকে ছেড়ে দিয়ে দরজা খুলে দ্রুত পালিয়ে যায় সম্রাট। মুখ বাঁধার কারণে চিৎকার করতে না পারলেও পাশের বাড়ির ছেলে হিসেবে তাকে চিনে সনাক্ত করতে পেরেছেন। পরে ধাওয়া করে তাকে ধরা যায়নি।

বাঘা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মুঞ্জুরুল ইসলাম জানান, অভিযোগ তদন্ত করেছেন। স্থানীয়ভাবে মিমাংসার দায়িত্ব নেওয়ায় মামলা রেকর্ড করা হয়নি। যদি না হয় তাহলে মামলা রেকর্ড করবেন। ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ কিভাবে মিমাংসা করা যাবে চানতে চাইলে তিনি বলেন, বাদি রাজি থাকলে সম্ভব। তবে বাদির দাবি অদ্যাবদি মামলা রেকর্ড না করায় তিনি বিচার নিয়ে হতাশাগ্রস্ত। এ বিষযে কথা বলতে চাইলে অভিযুক্ত সম্রাটকে পাওয়া যায়নি।