১৮, ডিসেম্বর, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৯ রবিউস সানি ১৪৪০

ক্রিকেটে আশরাফুলের যত অর্জন

আপডেট: আগস্ট ১১, ২০১৮

ক্রিকেটে আশরাফুলের যত অর্জন

বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার মোহাম্মদ আশরাফুল জাতীয় দলের হয়ে এবং বিপিএলের খেলা থেকে দূরে আছেন পাঁচ বছর। ২০১৪ সালেবিপিএলের এন্টি-করাপশন ট্রাইবুন্যাল আশরাফুলকে ৮ বছরের নিষেধাজ্ঞা ও ১০ লাখ টাকা জরিমানা করে তবে পরে তা কমিয়ে ৫ বছর করা হয়।

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আগষ্টের ১৩ তারিখ আবারো ফিরছেন আশরাফুল। বিডি২৪রিপোর্টের আজকের আয়োজন আশরাফুলকে নিয়েই। এখন পর্যন্ত আশরাফুলের অর্জন গুলো নিয়েই আজকের আয়োজন-

১. আশরাফুলের একদিনের আন্তর্জাতিকে অভিষেক হয় ১১ এপ্রিল ২০০১ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে।

২. ২০০৫ সালে ন্যাটওয়েস্ট সিরিজে ক্রিকেটের পরাশক্তি অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে বাংলাদেশের স্মরণীয় জয়ে আশরাফুল ১০০ রান করেন। যে ম্যাচটি এখনো বাংলাদেশের জন্য সবচেয়ে স্মরনীয় ম্যাচ।

৩. ২০০৭ সালে আশরাফুল দক্ষিন আফ্রিকার বিরুদ্ধে ৮৩ বলে ৮৭ রান করেন। যার ফলে সে ম্যাচে বাংলাদেশ জয় পায়।

৪. ওয়ানডেতে ১৭৮ ম্যাচে ১৭০ ইনিংস খেলে আশরাফুল ৩৪৬৮ রান করেছেন। তার এভারেজ ২২.০৯ এবং সর্বোচ্চ ১০৯ রান করেছেন। ৩টি সেঞ্চুরি, ২০টি ফিফটি, ৩৫৫টি চার এবং ২৮টি ছয়ের মাধ্যমে তার এ অর্জন। বোলিংয়ে ওয়ানডেতে ১৭৮ ম্যাচে ১৮ উইকেট নিয়েছেন ৬৬১ রান দিয়ে ৬৯৭ বলের বিপরীতে।

৫. ২০০১ সালের ৮ সেপ্টেম্বর টেস্টে অভিষেক হয় আশরাফুলে। নিজের টেস্ট অভিষেকেই শ্রীলংকার বিপক্ষে ১১৪ রান করেন, যা বিশ্বের কনিষ্টতম খেলোয়ার হিসেবে সেঞ্চুরি করার রেকর্ড অর্জন করে।

৬. ২০০৪ সালে ভারতের বিপক্ষে টেস্টে ১৫৮ রান করেন যা ছিল প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে টেস্টের সর্বোচ্চ রান।

৭. টেস্টে ২০০৭-০৮ মৌসুমে দক্ষিন আফ্রিকা সফরে আশরাফুল খুবই ব্যতিক্রমী উপায়ে এবি ডি ভিলিয়ার্সকে আউট করেন। বোলারের হাত থেকে ছুটে যাওয়া বল দু’বার বাউন্স খায় এবং ব্যাটসম্যান বলটিকে সজোরে হিট না করে বোলারের হাতে তুলে দেন। আশরাফুল বলটিকে লুফে নেন। ফলশ্রুতিতে আম্পায়ার স্টিভ বাকনার ব্যাটসম্যানকে আউট ঘোষণা করেন।

৮. এখন পর্যন্ত আশরাফুল মোট ৬১টি টেস্টে মোট ২৭৩৭ রান করেছেন যেখানে তার সর্বোচ্চ রার ১৯০। যার মধ্যে রয়েছে ৬টি সেঞ্চুরি, ৮টি ফিফটি, ৩৩৫টি চার এবং ২২ ছক্কা। বোলিং করে টেস্টে ৬১ ম্যাচে ১৭৩৩ বল করে দিয়েছেন ১২৭১ রান যেখানে নিয়েছেন ২১ উইকেট।

৯. ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মাত্র ২০ বলে অর্ধশতক রান করেন যা ছিল টি-টোয়েন্টির প্রথম রেকড। যদিও ওই রেকড কয়েকদিন পরেই ভেঙ্গে ফেলেন যুবরাজ সিং।

১০. টি-টোয়েন্টিতে ২৩ ম্যাচে ৪৫০ রান করেছেন যেখানে তার সর্বোচ্চ স্কোর ছিল ৬৫ রান। টি-টোয়েন্টিতে ২টি অর্ধশতক থাকলেও কোন শতক নেই আশরাফুলের। বোলিং করে টি-টোয়েন্টিতে ২৩ ম্যাচে ১৩৮ বল করে নিয়েছেন ৮ উইকেট রান দিয়েছেন ২১০।