১৯, আগস্ট, ২০১৮, রোববার | | ৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯

রাতে এখনো একা ঘুমাতে ভয় পাই

আপডেট: আগস্ট ১১, ২০১৮

রাতে এখনো একা ঘুমাতে ভয় পাই

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল বিশ্বে টাইগার উপাধি পেয়েছে। সেই টাইগারদের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা রাতে এখনো একা ঘুমাতে ভয় পান। অবিশ্বাস্য হলেও এটাই সত্যি। আর এই কথাটি অকপটে তিনি স্বীকার করলেন স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাতে নিউইয়র্কে এক অনুষ্ঠানে।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ছোটকাল থেকে তিনি কারো না কারো সঙ্গে ঘুমাতেন। সেই অভ্যাসটা এখনো থেকে গেছে। দেশের বাইরে গেলেও এখনো একা ঘুমান না।

বাংলাদেশ ক্রিকেটের বোলিং স্তম্ভ, ওয়ানডে ম্যাচের অধিনায়ক ও নড়াইল এক্সপ্রেসখ্যাত মাশরাফি বিন মর্তুজাকে নিয়ে ‘লাইভ ইন মাশরাফি’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল নিউইয়র্কের শো’ টাইম মিউজিক অ্যান্ড প্লে (এসএমপি)। এ দিন রাতে জ্যাকসন হাইটসের বেলোজিনো পার্টি হলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভক্তরা কাছ থেকে দেখার সুযোগ পান তাদের প্রিয় মানুষ এবং প্রিয় খেলোয়াড়কে। কমবেশী সবাই তার সঙ্গে ছবি তুলেছেন, নিয়েছেন অটোগ্রাফও।

অনুষ্ঠানের শুরুকে স্বাগত বক্তব্য দেন শো’টাইম মিউজিকের কর্ণধার আলমগীর খান আলম। এরপর সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। শুরুতেই তিনি প্রবাসীদের শুভেচ্ছা ও ধন্যবাদ জানান। এরপর সুধীজন ও সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন মাশরাফি। এসময় তিনি বাংলাদেশের ক্রিকেটের অতীত, বর্তমান ও ভবিষ্যত নিয়ে এবং নিজের ব্যক্তিগত জীবনের নানা দিক তুলে ধরেন।

বাংলাদেশ ক্রিকেট নিয়ে অনুষ্ঠানে আশার কথা শোনান অধিনায়ক মাশরাফি। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট থেকে কেন বিদায় নিয়েছেন তা নিয়ে প্রশ্ন করেন অনেকেই। এমনকী অনেক ভক্ত তাকে টি-টোয়েন্টিতে ফিরে আসারও অনুরোধ করেন। এ প্রসঙ্গ নিয়ে কথা এগুতে দেননি তিনি।

প্রথমে কিছু বলতে না চাইলেও পরে তিনি সংক্ষেপে বলেন, টি-টোয়েন্টি নিয়ে আগেও আমি অনেকবার বলেছি। এ নিয়ে আসলে নতুন করে বলার নেই। তবে বয়সের কারণেই তিনি টি-টোয়েন্টিথেকে বিদায় নিয়েছেন, এমনই আভাস দিলেন ক্রিকেট ভক্তদের। তবে বর্তমান টিম ভাল করছে এবং অদূর ভবিষ্যতে টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ অনেক ভাল করবে, আশাবাদ ব্যক্ত করেন এই ওয়ানডে অধিনায়ক।

সিনিয়ররা ছাড়া অন্যরা তেমন ভাল করতে পারছে না কেন, এমন এক প্রশ্নের উত্তরে মাশরাফি বলেন, সিনিয়ররা ১০-১২ বছর খেলার পর একটা অবস্থানে এসেছে। নতুনদেরও সেই সময় দিতে হবে। তবে তারাও ভাল করছে না এমন বলা যাবে না। যার যার অবস্থান থেকে সবাই ভাল করছে বলেই বাংলাদেশ দলে একের পর এক সাফল্য আসছে।

আগামী বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের সাফল্যের ব্যাপারে ব্যাপক আশাবাদী মাশরাফি বলেন, সবাই বিশ্বকাপ জিততে পারে না। দক্ষিণ আফ্রিকা অনেক ভাল দল। তারা আজ পর্যন্ত বিশ্বকাপের ফাইনালে যেতে পারেনি। তবে বিশ্বকাপে জয়ী হওয়া অনেকটা ভাগ্যের ব্যাপার। ভাগ্য ভাল হলে বাংলাদেশও আগামীতে ভাল করবে। এজন্য সবার দোয়া ও সমর্থন চান তিনি।

ক্রিকেটার না হলে মাশরাফি পুলিশ কিংবা ডিফেন্সে যোগ দিতেন। ছোটকাল থেকে সেই স্বপ্ন ছিল তার। এ কারণ হিসাবে তিনি বলেন, একজন পুলিশ বা সামরিক কর্মকর্তার দেশসেবার সুযোগটা অন্যদের চেয়ে বেশী।

খেলার বাইরে অবসর সময়ে পরিবারের সঙ্গেই থাকতে পাছন্দ করেন মাশরাফি। এমনকী বিদেশ সফরও তার খুব একটা পছন্দের নয়। তবে প্রবাসীদের দেশপ্রেম অনেক বেশী বলে মনে করেন তিনি।
ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজ শেষে যুক্তরাষ্ট্রে সফরে এসেছেন মাশরাফি। ঢাকা থেকে স্ত্রী, পুত্র-কন্যাও যোগ দিয়েছেন তার সঙ্গে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের সঙ্গে সিরিজ জয় করেছে তার দল। তাই বেশ খোঁজ মেজাজেই কাটছে তার দিন। আর এ সুযোগে প্রবাসীদের সঙ্গেও সময় কাটালেন তিনি। ঘুরে গেছেন নিউইয়র্কের মিনি বাংলাদেশখ্যাত জ্যাকসন হাইটসও। এ প্রসঙ্গে তিনি বললেন, সেখানে গিয়ে বেশ ভাল লেগেছে। মনেই হয়নি বিদেশে আছি।

শো’টাইম মিউজিকের অনুষ্ঠানে বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেওয়া হয়। তাদের হাতে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন মাশরাফি। অন্যদিকে সফল ও আদর্শবান মানুষ হিসেবে মাশরাফিকে সম্মাননা জানান শো’টাইম মিউজিকের কর্ণধার আলমগীর খান আলম।

উল্লেখ্য, এর আগে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের সঙ্গে দু’বার একই রকম অনুষ্ঠানের আয়োজন করে শো’টাইম মিউজিক।