২১, আগস্ট, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯

গত রাতে কে এসেছিল বাড়িতে

আপডেট: আগস্ট ১১, ২০১৮

গত রাতে কে এসেছিল বাড়িতে

রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ছাড়াছাড়ির পর ‘সিঙ্গল মাদার’ হিসেবে ছেলে সহজকে বড় করে তুলছেন প্রিয়াঙ্কা সরকার। নিজের জীবনের মতো এবার সেই একই ধারা বজায় থাকল রূপালি পর্দাতেও। ছবিতে একজন সিঙ্গল মাদার হিসবে ছেলেকে বড় করে তুলছেন সুজি। যেখানে সিঙ্গল মাদার হয়ে কটাক্ষও শুনতে হয় তাকে।

পরিচালক বিরসা দাসগুপ্তের সিনেমা ‘ক্রিসক্রস’-এ অন্য ৪ জন লড়াকু নারী চরিত্রের সঙ্গে উঠে এসেছে সুজির (প্রিয়াঙ্কা) চরিত্রটিও।

‘ক্রিসক্রস’-এর প্রমোশনে এস নিজের জীবনের কথা তুলে ধরলেন প্রিয়াঙ্কা। সিঙ্গল মাদার হিসেবে কী কী কথা শুনতে হয়- তাও প্রকাশ করলেন তিনি।

প্রিয়াঙ্কা জানান, মা হয়ে কেন অন্যরকম পোশাক পরে ছবি আপলোড করেন, সেই প্রশ্নও শুনতে হয়। আবার কখনও মায়ের এমন পোশাক দেখলে ছেলে কী শিখবে বলেও তোলা হয় প্রশ্ন। ছেলেকে কখনও স্কুলে দিয়ে কোথায় যান, এমন প্রশ্নও করা হয় প্রিয়াঙ্কা সরকারকে দেখে। আবার কখনও গত রাতে কে এসেছিল বাড়িতে, সিঙ্গল মাদারকে দেখে কখনও সেই প্রশ্নও উঠে আসে প্রতিবেশীদের মুখে। আবার বিয়ে করলে আপনার ছেলের ওপর প্রভাব পড়বে- এমন তীব্র আক্রমণের মুখেও পড়তে হয় সিঙ্গল মাদারদের।

তবে এমন প্রশ্ন, কটাক্ষ এখন আর গায়ে লাগে না বলে জানান প্রিয়াঙ্কা। বরং এসবের সঙ্গে অভ্যস্ত হয়ে গেছেন বলেও জানান তিনি।

সিঙ্গল মাদারদের দেখে মানুষ যাতে এই ধরনের ভিত্তিহীন কথাবার্তা বন্ধ করেন- সেই আশাও প্রকাশ করেন প্রিয়াঙ্কা সরকার। সবকিছু মিলিয়ে মানুষ যাতে অন্যকে অপমান, অপদস্ত করার আগে হাজার বার ভাবেন, সেই আশাই প্রকাশ করেন টলিউডের এই অভিনেত্রী। পাশাপাশি আরও বলেন, তারা (সিঙ্গল মাদাররা) ভাল আছেন। নিজেদের মতো করে আছেন।

প্রসঙ্গত, ১০ অগাস্ট মুক্তি পাবে বিরসা দাসগুপ্তের ‘ক্রিসক্রস’। এই সিনেমায় পাঁচ নারীর লড়াকু জীবনের কথা তুলে ধরা হয়েছে। আর এই পাঁচ নারী চরিত্রে অভিনয় করছেন প্রিয়াঙ্কা সরকার, সোহিনী, জয়া আহসান, নুসরত এবং মিমি চক্রবর্তী।