২১, আগস্ট, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯

ডাকলেন রিজভী, বললেন ফখরুল

আপডেট: আগস্ট ১০, ২০১৮

ডাকলেন রিজভী, বললেন ফখরুল

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী গত সাত মাস ধরে স্বেচ্ছায় গৃহবন্দি হয়ে বিএনপি কার্যালয়ে অবস্থান করছেন। মাঝেমধ্যে বাইরে বের হয়ে খানিকটা মিছিল -মিটিং করে আবার গন্তব্য বিএনপি কার্যালয়ে ফেরেন। কার্যালয়ে অবস্থানকালে তার একমাত্র কাজ দৈনিক একবেলা প্রেস কনফারেন্স করা। এই প্রেস কনফারেন্স করে প্রায়শই তিনি দলকে বিব্রতকর অবস্থায় ফেলেন। গত কয়েকদিন ধরেই দলের মধ্যে তার প্রেস কনফারেন্স নিয়ে হাসি ঠাট্টা চলছে। সিনিয়র অনেক নেতা ভীষণ বিরক্তও।

আজ শুক্রবারও প্রতিদিনকার মতো প্রেস কনফারেন্সের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন রিজভী, তিনি কিছু বলবেন। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ফোন করে আজ প্রেস কনফারেন্স না করার অনুরোধ করেন। মির্জা ফখরুলকে থোড়াই কেয়ার করেন রিজভী? এমন কথা শুনে রাগে গজগজ করতে থাকলেন রিজভী। সংবাদিকদের ডেকে কথা বলবেন, রিজভীর প্রস্তুতি শেষ মুহূর্তে। এমন সময় তড়িঘড়ি করে ফখরুল অফিসে ঢুকলেন। ভিতরে ঢুকে দেখলেন, সাংবাদিকরা বসে আছে। মির্জা ফখরুল আর কারো সঙ্গে কোন কথা না বলে সোজা বক্তব্য দেয়া শুরু করলেন। রিজভীর আর সুযোগ হলো না। আজকের মতো তাকে চুপ করিয়ে দিল ফখরুল। রিজভীকে এর আগেও মির্জা ফখরুল বলেছিলেন, আমাদের অনুমতি ছাড়া প্রেস কনফারেন্স করবেন না। করলেও, কি বিষয় নিয়ে কথা বলবেন। সেটা আগে জানাবেন। সেটা মানেননি রিজভী। সেজন্যই মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন কাণ্ড ঘটাতে হল। রিজভীর ডাকা প্রেস কনফারেন্সে নিজেই বক্তব্য রাখলেন। বলা যায়, কিছুটা বাধ্য ও বিরক্ত হয়েই।

রাজনীতির এমন গুরুত্বপূর্ণ সময়ে বিএনপি যেন বিভ্রতকর অবস্থায় না পরে। সেজন্যই রিজভীকে প্রেস কনফারেন্স থেকে সরিয়ে দেয়া হল। যদিও, এ নিয়ে রিজভীর কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। সবাই আগামীকাল তিনি কি মন্তব্য করেন সে অপেক্ষায় আছেন।