আজ বুধবার দুপুর ১২:১৪, ২৩শে আগস্ট, ২০১৭ ইং, ৮ই ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৩০শে জিলক্বদ, ১৪৩৮ হিজরী

ব্যাটিং পিচেও বাংলাদেশের এত ছোট স্কোর কেন ?

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : মার্চ ৯, ২০১৭ , ১০:৩৯ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

নিখাদ ব্যাটিং পিচ।  পেসারদের কোন মারাত্মক সুইং কিংবা স্পিনারদের কবজির মোচড় থেকে বড় টার্নের নজির খুব একটা ছিল না।  তারপরও গল টেস্টে বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ের এই দৈন্য দশা কেন?

তামিম সৌম্যের চমৎকার উদ্বোধনী জুটির পর টাইগাররা কত রানের লিড পেতে পারে এই নিয়ে যখন আলোচনা শুরু হয়েছে, তখন সব আলোচনাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বাংলাদেশ অলআউট হলো শ্রীলঙ্কার চেয়ে ১৮৯ রানে পিছিয়ে থেকে।  দারুণ একটি সম্ভাবনা নষ্ট হয়েছে মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায়।  অথচ বাংলাদেশের মিডল অর্ডার যেখানে দাড়াতেই পারেনি সেখানে একদিন আগে কত চমৎকার ব্যাটিং করেছে স্বাগতিকরা।

মূলত দুই দলের পার্থক্য গড়ে দিয়েছে মিডল অর্ডার।  প্রথম একশো রান তুলতেই তিন উইকেট হারিয়েছিল শ্রীলঙ্কা, তারপরও তাদের মিডল অর্ডারের চার ব্যাটসম্যান দলকে এনে দিয়েছে কাঙ্খিত স্কোর।  কুশল মেন্ডিসের ১৯৪ ছাড়াও গুনারত্মের ৮৫, ডিকওয়েলার ৭৫ ও পেরেরার ৫১ রানই তাদের পাঁচশোর কাছাকাছি নিয়ে গেছে।

বাংলাদেশের ওপেনাররা একশো পার করেছিলেন কোন বিপদ ছাড়াই।  কিন্তু এরপরই যেন খেই হারিয়ে ফেলে টাইগাররা।  শ্রীলঙ্কার ইনিংসে ৫, ৬ ও ৭ নম্বরের ব্যাটসম্যানদের মোট রান ২১১।  বিপরীতে এই পজিশনের বাংলাদেশের তিন ব্যাটসম্যানের রান মাত্র ৩৬।  মিডল অর্ডারে মুশফিক ও মিরাজের ১০৬ রানের জুটি ছাড়া আর কোন শতরানের জুটি হয়নি।  দ্বিতীয় সর্বোচ্চ জুটি সাকিব-মুশফিকের ২৮।

বলা হয়ে থাকে টেস্ট ব্যাটিংয়ের মূল স্তম্ভই হলো মিডল অর্ডার।  কোহলি-রাহানে, মিসবাহ-ইউনুস কিংবা স্মিথ-মার্শরা যেখানে দলকে বড় স্কোরের পথে নিয়ে যান-সেখানে বাংলাদেশের মিডল অর্ডারে এক মুশফিকুর রহিম ছাড়া হতাশ করেছেন সবাই।  যার ফলে দলও এখন টেস্ট বাঁচানো নিয়ে শঙ্কায়।  শ্রীলঙ্কা দ্বিতীয় ইনিংসে ২৫০ রান করলেও টার্গেট চলে যাবে ধরা ছোঁয়ার বাইরে।  ব্যাটিং পিচে সেটি অস্বাভাবিকও নয়।  কাজেই গল টেস্টের ফল নিয়ে বাংলাদেশের সামনে আশাবাদী হওয়ার সুযোগ কম সেকথা বলাই যায়।