১৮, ডিসেম্বর, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৯ রবিউস সানি ১৪৪০

ঐশ্বর্যর মোহ কাটাতে পারেননি এখনও! এ কী বললেন সলমন…

আপডেট: আগস্ট ১০, ২০১৮

ঐশ্বর্যর মোহ কাটাতে পারেননি এখনও! এ কী বললেন সলমন…

সলমন খান-কি এখনও পুরোপুরি ভুলতে পারেননি ঐশ্বর্য রাইকে? কি অবাক লাগছে তো শুনতে? তবে ‘লাভরাত্রি’ ট্রেলর মুক্তি পাওয়ার দিন কিন্তু এমনই আভাস দিলেন সলমন খান।

বিষয়টি খুলেই বলা যাক তাহলে। সম্প্রতি আয়ুষ শর্মা এবং ওয়ারিনা হুসেনের ‘লাভরাত্রি’-র ট্রেলর মুক্তির দিন স্টেজে হাজির হন সলমন খান। এবং, সেখানেই তাঁকে নবরাত্রি অনুষ্ঠানের সেরা মুহূর্ত নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। সাংবাদিকদের প্রশ্ন শুনে প্রথমে হেসে ফেলেন ‘ভাইজান’। পরে বলেন, তাঁর কাছে নবরাত্রির সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য মুহূর্ত হল ‘ঢোলি তারো’। অর্থাত, ‘হাম দিল দে চুকে সনম’-এর গান ‘ঢোলি তারো’-র শুটিংই তাঁর কাছে সবচেয়ে বড় নবরাত্রি ইভেন্ট। বিচ্ছেদের পর এক যুগের বেশি পার হয়ে গেলেও, এখনও কি প্রাক্তন বান্ধবী ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকে ভুলতে পারেননি সলমন খান? এবার এমন প্রশ্নই উঠতে শুরু করেছে।

‘হাম দিল দে চুকে সনম’-এর সময় থেকেই ঐশ্বর্য রাই-এর সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান সলমন খান। দু’জনের মধ্যের সম্পর্ক নিয়ে যখন তোলপাড় হয়ে যায় বলিউড, সেই সময় আচমকাই রাই-এর সঙ্গে সলমনের সম্পর্ক ভেঙে যায়। শুধু তাই নয়, সলমন খানের সঙ্গে আর কখনও কোনওদিন স্ক্রিন শেয়ার করবেন না বলেও জানিয়ে দেন ঐশ্বর্য। পাশাপাশি সলমন তাঁর উপর মানসিক অত্যাচারের পাশাপাশি শারীরিক অত্যাচারও করতেন বলে অভিযোগ করেন রাই। পাশাপাশি সলমন তাঁর গায়ে হাত তুলতেন বলেও করা হয় অভিযোগ। যদিও, ঐশ্বর্যর একের পর এক অভিযোগ সামনে আসার পরও এ বিষয়ে পাল্টা কোনও মন্তব্য করেননি সলমন খান।

সলমন খানের সঙ্গে ঐশ্বর্য রাই-এর বিচ্ছেদ হওয়ার পর শাহরুখ খানের সঙ্গে ‘চলতে চলতে’-তে স্ক্রিন শেয়ারের কথা ছিল রাই-এর। কিন্তু, আচমকাই ‘চলতে চলতে’-র সেটে গিয়ে এসআরকে-র সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করতে শুরু করেন সলমন খান। সেই কারণেই ঝামেলা আর না বাড়িয়ে ঐশ্বর্যর রাই-এর জায়গায় রানি মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে আসেন শাহরুখ। যা নিয়ে অসন্তুষ্ট হন ঐশ্বর্য।ওই ঘটনার পর থেকেই সলমনের সঙ্গে যেমন মুখ দেখাদেখি বন্ধ হয়ে যায় রাই-এর, তেমনি কিং খানের সঙ্গেও তাঁর সম্পর্কের অবনতি ঘটে।

শোনা যায়, ‘চলতে চলতে’-র সেটের ওই ঘটনার পর অভিষেক বচ্চন এবং গৌরি খান শাহরুখ এবং ঐশ্বর্যর মধ্যে দূরত্ব মেটানোর চেষ্টা করলেও, তা এখনও পুরোপুর স্বাভাবিক হয়নি।