১৮, ডিসেম্বর, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৯ রবিউস সানি ১৪৪০

ইবির দুই শিক্ষার্থীর ‘আত্মহত্যা’কারণ…

আপডেট: আগস্ট ১০, ২০১৮

ইবির দুই শিক্ষার্থীর ‘আত্মহত্যা’কারণ…

প্রেম ঘটিত কারণে কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের দুই শিক্ষার্থী পৃথকস্থানে ‘আত্মহত্যা’ করেছেন।

এরা হলেন- কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০১১-১২ শিক্ষা বর্ষের ছাত্র রোকনুজ্জামান এবং মুনতা হেনা।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঘরের মধ্যে গলায় ফাঁস নেন হেনা। পরে রাত ৮টার দিকে সদর উপজেলার মতি মিয়া রেলগেট এলাকায় পোড়াদহ থেকে গোয়ালনন্দগামী ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করে রোকনুজ্জামান।

রোকনুজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিন্যান্স এন্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০১১-১২ শিক্ষা বর্ষের ছাত্র এবং তার বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা এলাকায়।

জানা যায়, রোকনুজ্জামান কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের আল-হাদিস বিভাগের চেয়ারম্যান ড. আশরাফুল আলমের মেয়ে; তার সহপাঠী মুনতা হেনার সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন।

পারিবারিকভাবে সেটা মেনে না নেওয়ায় হেনা আজ বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ঝিনাইদহ শহরের ঝিনুক টাওয়ারের ৫ম তলায় তার নিজ শয়ন কক্ষে ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। হেনার মৃত্যুর সংবাদ শুনে রাত ৮টার দিকে রোকনুজ্জামান ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্ম্যহতা করেন।

পোড়াদহ জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল আজিজ জানান, কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার মতি মিয়া রেলগেট এলাকায় পোড়াদহ থেকে গোয়ালনন্দগামী ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে। তার বাড়ি

চুয়াডাঙ্গায় এবং সে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যাংকিং বিভাগের শেষ বর্ষের ছাত্র। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করেছে।