আজ মঙ্গলবার সকাল ৬:০০, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ২রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

দেশে গণতন্ত্র আছে বলেই এতো উন্নয়ন হচ্ছে : প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : মার্চ ৯, ২০১৭ , ১০:২৭ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : জাতীয়,প্রধান খবর,লিড নিউজ
পোস্টটি শেয়ার করুন

যারা দেশের গণতন্ত্রের উপস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তাদের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, দেশে গণতন্ত্র আছে বলেই এতো উন্নয়ন হচ্ছে। তিনি বলেন, ‘যদি দেশে গণতান্ত্রিক পরিবেশ নাই থাকতো তাহলে তারা এতো কথা বা সমালোচনা করেন কিভাবে। দেশে গণতন্ত্র রয়েছে বলেই এর ধারাবাহিক উন্নয়ন হচ্ছে।’

বৃহস্পতিবার সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ কথা বলেন। শেখ হাসিনা বলেন, রাষ্ট্রপতির ভাষণে সরকারের সার্বিক উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী একশ্রেণীর স্বার্থান্বেষী মহলের সমালোচনা করে বলেন, কারো কারো মুখে শুনি তাদের গণতন্ত্র লাগবে। আসলে দেশে সামরিক শাসক থাকলে তাদের কাছে তখন পরিস্থিতিটা অনেকটা গণতান্ত্রিক মনে হয়। কারণ ওই শাসকদের পদলেহন করে তারা বাড়তি সুবিধা নিতে পারবে। অস্বাভাবিক একটা ক্ষমতা পেলে তাদের গুরুত্ব বাড়তে পারে বা তারা একটা পতাকা পেতে পারেন।

তিনি এ প্রসঙ্গে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় দেশে জরুরি অবস্থা জারি করে তাকে গ্রেফতার করে মিথ্যা মামলা দেয়ার ষড়যন্ত্রের কথাও উল্লেখ করেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকারের উদ্যোগে টেলিভিশনকে বেসরকারি খাতে ছেড়ে দেয়াতেই আজকে অনেক বেসরকারি টিভি চ্যানেল প্রতিষ্ঠা হয়েছে এবং তারা সমালোচনা বা বিরোধিতা করতে পারছেন।

তিনি বলেন, ‘আমি শেখ হাসিনা প্রাইভেটে টিভি চ্যানেল করার সুযোগ দিয়েছি বলেই আজকে কথা বলা বা সমালোচনা সুযোগ পাচ্ছেন।’
আমাদের পূর্বে ২১ বছর যারা ক্ষমতায় ছিলো তারা এই উন্নয়নটা করতে পারেনি কেন, প্রশ্ন তোলেন প্রধানমন্ত্রী।

সরকার প্রধান বলেন, আমরা ৮ বছরে যা পারলাম তা ২১ বছরেও কেন করতে পারেনি তাদের সেই জবাবটা আগে দিতে হবে যারা আজকে সমালোচনা করছেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা গণতন্ত্রে বিশ্বাস করি আর প্রতিটি কর্মকান্ডে জনগণকে সম্পৃক্ত করি। আর যা কিছু করি তা জনগণের স্বার্থে। নিজের ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য চিন্তা করি না। পতাকা পেলাম কি পেলাম না সেটারও চিন্তা করি না।