১৭, অক্টোবর, ২০১৮, বুধবার | | ৬ সফর ১৪৪০

নড়াইলের সিকদার কমপ্লেক্সের সামনে থেকে ভুয়া ডিবি পুলিশ গ্রেফতার

আপডেট: আগস্ট ৮, ২০১৮

নড়াইলের সিকদার কমপ্লেক্সের সামনে থেকে ভুয়া ডিবি পুলিশ গ্রেফতার

উজ্জ্বল রায়, নড়াইল প্রতিনিধি: নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম এর নেতৃত্বে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) পরিচযয়দানকারী ভুয়া ডিবি ও জালিয়াতি চক্রের সদস্য নড়াইলের রূপগঞ্জ বাজারস্থ সিকদার কমপ্লেক্সের সামনে থেকে এক ভুয়া গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) কে গ্রেফতার করেছে নড়াইল জেলা বিশেষ শাখার একটি টিম।

আটককৃত ভুয়া ডিবি পুলিশের নাম বাবু বিশ্বাস (৩৫)। সে নড়াইল পৌরসভাধীন ভওয়াখালী এলাকার শাহাজাহান বিশ্বাসের ছেলে। বুধবার (৮ আগস্ট) বেলা ১২টার দিকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। জানা গেছে, গ্রেফতারকৃত বাবু দীর্ঘদিন ধরে ডিবি পুলিশ, সেনা সদস্য, সিআইডি কর্মকর্তা, এনএসআই কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন উচ্চ পদস্থ পরিচয় দিয়ে মানুষকে জিম্মি করে টাকা আদায় করছিল। ঈদকে সামনে রেখে এই প্রতারক চক্র আরো সক্রিয় হয়ে উঠেছে। বাবু নিজ এলাকার পাশেই রূপগঞ্জ বাজারে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে স্কুল ছাত্রদের জিম্মি করে অর্থ আদায়ের চেষ্টা করছে মর্মে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম এর নিকট একটি গোপন সংবাদ আসে। ওই সংবাদের প্রেক্ষিতে তিনি নড়াইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাহিদুল ইসলাম পিপিএম ও সহকারি পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ মেহেদী হাসান ও জেলা বিশেষ শাখার পুলিশ সদস্যদের নিয়ে একটি বিশেষ টিম তৈরি করে দেন। সেই সাথে তিনি নিজে নির্দেশনা প্রদান করেন। পুলিশ সুপারের নির্দেশনায় নড়াইল জেলা বিশেষ শাখার ওয়াচার কনস্টেবল মোঃ জালাল বিশ্বাস বাবুকে হাতেনাতে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। গ্রেফতারের পর তার কাছ থেকে একাধিক মোবাইলের সিম কার্ড, বিভিন্ন উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তার ভুয়া আইডি কার্ড ও দুইটি মোবাইল জব্দ করে। এ ব্যাপারে নড়াইলের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, পিপিএম নড়াইল জেলা অনলাইন মিডিয়া ক্লাবের সভাপতি উজ্জ্বল রায়কে বলেন, ঈদকে সামনে রেখে প্রতারক চক্ররা সক্রিয় হয়ে উঠছে। মানুষকে জিম্মি করে তাদের নিকট থেকে অর্থ হাতিয়ে নেওয়ায় এদের মূল লক্ষ ও উদ্দেশ্য। এরই ধারাবাহিকতায় নড়াইল জেলা পুলিশ অভিযান চালিয়ে প্রতারক বাবুকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে। সেই সাথে এ সকল প্রতারকদের পেশা পরিবর্তনের জন্যও তিনি কঠোর হুঁশিয়ারি প্রদান করেন।