২০, আগস্ট, ২০১৮, সোমবার | | ৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৩৯

এশিয়া কাপ খেলবেন না সাকিব? তবে…

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০১৮

এশিয়া কাপ খেলবেন না সাকিব? তবে…

ছয় মাস আগে পাওয়া আঙুলের চোটে এখনো ভুগছেন সাকিব আল হাসান। বাঁ-হাতের কনিষ্ঠায় ব্যথা নিয়েই খেলেছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টি-টুয়েন্টি সিরিজ। সোমবার সিরিজ নির্ধারণী ম্যাচে নেমেছিলেন ব্যথা প্রশমনকারী ইনজেকশন নিয়ে।

এভাবে লম্বা সময় খেলা চালিয়ে যাওয়া সাকিবের জন্য কঠিন বলে মনে করছেন দেশ-বিদেশের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। এ অবস্থা থেকে মুক্তি পেতে অস্ত্রোপচারের বিকল্প নেই টাইগার অলরাউন্ডারের সামনে।

ব্যথার কারণে বোলিং করতে সমস্যা না হলেও ব্যাটিংয়ে পুরোপুরি এফোর্ট দিতে পারছেন না সাকিব। অস্ত্রোপচার হলে দেড় থেকে দুই মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে টেস্ট ও টি-টুয়েন্টি অধিনায়ককে।

মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) বিসিবি চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী সংবাদমাধ্যমকে এমন তথ্য দিয়েছেন।

দেবাশীষ বলেন, ‘সাকিবের বাঁ-হাতের লিটল ফিঙ্গারের জয়েন্ট ডিস-লোকেশন ছিল। সে মূলত ব্যাটিংয়ে সমস্যা অনুভব করছে। সে ব্যাটিংয়ে শতভাগ এফোর্ট দিতে পারছে না। বেশ কয়েকবার আমাদের জানিয়েছে। এই জন্য ওকে একজন হ্যান্ড সার্জনের কাছে পাঠানো হয়েছিল অস্ট্রেলিয়াতে। ডাক্তার ডেভিড হয় এর তত্ত্বাবধানে ওকে একটা ইনজেকশন দেয়া হয়। এরপর প্রদাহ কিছুটা কমে আসে। ফলে গত কয়েক মাস সে মোটামুটি পেইন ফ্রি থেকেই খেলতে পেরেছে। যদিও কিছু সমস্যা থেকেই গেছে। হ্যান্ড সার্জনের কথা মতো শর্ট টার্ম ম্যানেজমেন্টের জন্য ইনজেকশন দেয়া হয়েছে। কিন্তু লং টার্মে এটা খুব একটা কাজ করবে না। দল ফ্লোরিডা যাওয়ার পর সেখানকার ডাক্তার একটি ইনজেকশন দিয়েছেন। সেখানকার ডাক্তারও বলেছে এমন ম্যানেজমেন্ট খুবই অল্প সময়ের জন্য কাজে লাগবে। এই জন্য টিম দেশে ফেরার পর সাকিব, ম্যানেজমেন্ট ও আমরা সবাই মিলে বসে একটা সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কারণ অপারেশন হলে প্রায় দেড়-দুই মাস রিহ্যাবের দরকার পড়বে।’

ওয়েস্ট ইন্ডিজ মিশন শেষে বৃহস্পতিবার (৯ আগস্ট) সকালে টিম বাংলাদেশ দেশে ফিরলে টিম ম্যানেজমেন্ট, মেডিকেল বিভাগ ও সাকিব মিলে অস্ত্রোপচারের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

সেপ্টেম্বরে আরব আমিরাতে এশিয়া কাপ, অক্টোবর-নভেম্বরে ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজ। কোন সময়ে অস্ত্রোপচার করলে সাকিবের অভাব দলে কম প্রভাব ফেলবে সেটি নিয়ে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

যদি অপারেশনের সিদ্ধান্ত এখনই নেয়া হয় তাহলে আরব আমিরাতে অনুষ্ঠিত এশিয়া কাপের মঞ্চে দেখা যাবে না এই অলরাউন্ডারকে।