১৮, অক্টোবর, ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৭ সফর ১৪৪০

‘গুজব’ ছড়ানোর অভিযোগে আটক ঢাবি শিক্ষার্থীদের ‍মুক্তি

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০১৮

‘গুজব’ ছড়ানোর অভিযোগে আটক ঢাবি শিক্ষার্থীদের ‍মুক্তি

গুজব ছড়ানোর অভিযোগ এনে মারধর করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন শিক্ষার্থীকে শাহবাগ থানায় সোপর্দ করেছিল ছাত্রলীগ। গুজবের বিষয়টি প্রমাণিত না হওয়ায় মঙ্গলবার (৭ আগস্ট) বিকেলে শাহবাগ থানা থেকে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

মুক্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা হলেন- ঢাবির গণিত বিভাগের তারিকুল ইসলাম, তড়িৎ প্রকৌশল বিভাগের ওমর ফারুক ও পদার্থবিদ্যার জোবাইদুল হক রনি।

সোমবার (০৬ আগস্ট) রাতে তারাসহ ছয় শিক্ষার্থীকে ফজলুল হক মুসলিম হলে মারধর করে শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। পরবর্তীতে রাত আড়াইটার দিকে তিনজনকে প্রক্টরিয়াল বড়ির মাধ্যমে শাহবাগ থানায় দেওয়া হয়।

মারধর করার বিষয়ে জানতে চাইলে ছাত্রলীগের হল শাখা সভাপতি শাহরিয়ার সিদ্দিক সিসিম মারধর করার অভিযোগ অস্বীকার করেন।  তিনি বলেন, তাদের মারধর করা হয় নি। তাদের ফোনে গুজব ছড়ানোর কথোপকথন রয়েছে। পরে তাদের থানায় দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসান বলেন, অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় আটকদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

মুক্তির পর টিএসসিতে তাদের নিয়ে সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট নেতাকর্মীদের মিছিল করতে দেখা গেছে। এর আগে দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী টিএসসি রাজু ভাস্কর্যে অবস্থান নিয়ে এ ঘটনার প্রতিবাদ জানান। পরে তারা প্রক্টরের কাছে এ বিষয়ে পদক্ষেপ নিতে বলেন।