২৩, অক্টোবর, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ১২ সফর ১৪৪০

ব্লাড প্রেসার চিকিৎসায় হোমিও প্রতিবিধান

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০১৮

ব্লাড প্রেসার চিকিৎসায় হোমিও প্রতিবিধান

ডাঃমুহাম্মাদ মাহতাব হোসাইন মাজেদ: বাংলা কথা রক্ত চাপ। কিন্তু ইংরেজীটাই পরিচিতি বলে বাংলা বুঝিনা।এই ব্লাড প্রেসার নামক রোগটি আজকাল ব্যাপকভাবে প্রসার লাভ করেছে।যে কোন রোগীই ডাক্তার খানায় গিয়ে বলে থাকেন,ডাক্তার সাহেব,আমার প্রেসার টা একটু দেখেন তো।এটির সাধারণতঃশহরের ধনীওবিলাসী ব্যক্তিদের রোগ। খেটে খাওয়া বা দিন মজুর মানুষের এরোগ হয় না। আর হলেওতা উচ্চ রক্ত চাপ হয় না,নিম্ন চাপেই থাকে।এখন বুঝতে হবে এই রক্ত চাপটি কি? উচ্চ রক্তচাপ ইহার ভাবী ফল অত্যন্তন ভয়ানক, আশংকা জনক।হৃৎপিন্ডের স্পন্দন দ্বারা যে শক্তি চালিত হয় ইহাই উচ্চ রক্তচাপ।ব্লাড প্রেসার অন্য রোগের অব্যবস্হা মাএ।কোন সময় রক্তচাপ অত্যন্ত বাড়িয়াও যায়,কোন সময় কমিয়া যায়,শির পীড়া,মাথা ঘুরা,বুকে চাপ বোধ,বুক ধড়ফড় করা,মাথা ভার বোধ,শারীরিক পরিশ্রমে অনীহা,শ্বাস কষ্ট,হাঁপানীর মত অবস্হা,নিদ্রা কমিয়া যায়,মাঝে মাঝে নাসিকা হইতে রক্ত পড়ে।আরো অনেক লক্ষন আসতের পারে,মাথায় রক্ত উঠিয়া অস্হিরতা,চিলিক মারা মাথা ব্যথা,চোখ,মুখ লাল তন্দ্রাচ্ছন্নভাব কিংবা সংজ্ঞাহীন অবস্হা ইত্যাদি।

★হোমিওপ্রতিবিধান ঃ রোগ নয় রোগীকে চিকিৎসা করা হয়, এই জন্য রোগীর পুরা লক্ষন মিলিয়ে চিকিৎসা দিতে পারলে তাহলে হোমিওতে উচ্চ রক্ত চাপ রোগীর চিকিৎসা দেওয়া সম্ভব। অভিজ্ঞ হোমিও চিকিৎসক গন উচ্চ রক্ত চাপের জন্য যেসব ঔষধ ব্যবহার করে থাকেন,একোনাইট,এড্রিনালিন,অরামমেট,ক্যাকটাস গ্র্যান্ডি,কেলিফস,নেট্রাম মিউর,ক্যাটে গ্র্যাস,সেফালেন্ড্রা ইন্ডিকা,অর্জুন সহ আরো অনেক মেডিসিন লক্ষনের উপর আসতে পারে। তবে সাবধান চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ঔষধ সেবন করলে রোগ আরো জটিল আকারে পৌছতে পারে।
লেখক,
ডাঃ মুহাম্মাদ মাহতাব হোসাইন মাজেদ
স্বাস্থ্য বিষয়ক উপদেষ্টা, হিউম্যান রাইটস রিভিউ সোসাইটি কেন্দ্রীয় কমিটি।
মোবাইল নং০১৮২২৮৬৯৩৮৯