১৮, ডিসেম্বর, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৯ রবিউস সানি ১৪৪০

বাংলাদেশে প্রস্তাবিত সড়ক আইন নিয়ে বিশেষজ্ঞ প্রতিক্রিয়া

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০১৮

বাংলাদেশে প্রস্তাবিত সড়ক আইন নিয়ে বিশেষজ্ঞ প্রতিক্রিয়া

বেপরোয়াভাবে বা অবহেলায় গাড়ি চালানোর জন্য সড়ক দুর্ঘটনায় কারো মৃত্যু হলে অথবা কেউ গুরুতর আহত হলে চালককে সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের জেল বা অর্থদন্ড অথবা উভয় দন্ডের বিধান রেখে বাংলাদেশের মন্ত্রীসভা নতুন একটি আইন প্রণয়নের কাজ চূড়ান্ত করেছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রীসভার বৈঠকে ওই আইন চূড়ান্ত হয় সোমবার।

বৈঠক শেষে মন্ত্রী পরিষদ সচিব সাংবাদিকদের বলেন, তবে তদন্তে যদি দেখা যায় যে, উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে চালক বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে হত্যাকান্ড ঘটিয়েছেন তাহলে ফৌজদারী দন্ডবিধি অনুযায়ী সাজা হবে মৃত্যুদন্ড। তবে এটি তদন্ত সাপেক্ষ এবং আইন-শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর তদন্তের তথ্যের উপর নির্ভর করে দন্ডবিধির ধারা নির্ধারিত হবে।

এদিকে, আইনমন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেছেন, দন্ডবিধিতে বর্তমানে তিন বছরের সাজার বিধান রয়েছে।

নতুন আইন চূড়ান্ত করার পরে সমাজের বিভিন্নস্তর থেকে প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেছে। ভয়েস অব আমেরিকার সাথে আলাপকালে এমন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন সড়ক নিরাপত্তা নজরদারী সংস্থা বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী, সড়ক পরিবহন বিশেষজ্ঞ এবং প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় বা বুয়েটের অধ্যাপক ড. শামসুল হক, সুপ্রীমকোর্টের আইনজীবী ও মানবাধিকারকর্মী মনজিল মোরশেদ এবং নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন পেশাদার গাড়ি চালক।