১৮, ডিসেম্বর, ২০১৮, মঙ্গলবার | | ৯ রবিউস সানি ১৪৪০

খেলোয়াড় বিক্রি করে মোনাকোর আয় ৫৩৭৭ কোটি টাকা!

আপডেট: আগস্ট ৭, ২০১৮

খেলোয়াড় বিক্রি করে মোনাকোর আয় ৫৩৭৭ কোটি টাকা!

ফ্রেঞ্চ লিগ ওয়ানের প্রথম সারির দল মোনাকো। বলা চলে তারকা উৎপাদনকারী দল। হালের জনপ্রিয় ফুটবলার কিলিয়ান এমবাপ্পে ও আলজেরিয়ান উইঙ্গার রাচিদ গেজাল মোনাকোর আবিষ্কার। গত দুই মৌসুমে ক্লাবটি শুধু প্লেয়ার বিক্রি করে আয় করেছে ৫৫০ মিলিয়ান ইউরো বা ৫ হাজার ৩৭৭ কোটি টাকা!

৫৫০ মিলিয়ন ইউরোর বড় একটা অংশ এসেছের ফরাসী স্ট্রাইকার এমবাপ্পের মাধ্যমে। গত গ্রীষ্মে দল বদলের বাজারে এমবাপ্পেকে ধারে প্যারিস সেন্ট জার্মেইয়ের কাছে পাঠানো হয়েছে। সে সঙ্গে শর্ত, এ মৌসুমে তাদের হাতে তুলে দেওয়া হবে ১৮০ মিলিয়ন ইউরো। ফ্রান্সের আরেক মিডফিল্ডার থমাস লেমারকে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের কাছে বিক্রি করা হয়েছে ৭০ মিলিয়নে, ফরাসি ডিফেন্ডার বেঞ্জামিন মেন্ডিকে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে বিক্রি করা হয়েছে ৫৭.৫ মিলিয়নে।

ক্লাবটি ম্যানচেস্টার ইউনাটেডের কাছে পর্তুগিজ মিডফিল্ডার বার্নান্দো সিলভাকে বিক্রি করেছে ৫০ মিলিয়ন ইউরোতে। ব্রাজিলিয়ান রাইটব্যাক ফাবিনহোকে ৫০ মিলিয়নে ছাড়া হয়েছে লিভারপুলে, মিডফিল্ডার তিয়েমো বাকাইয়োকো চেলসিতে গেছেন ৪০ মিলিয়নে।তিয়েমো বাকাইয়োকো চেলসিতে গেছেন ৪০ মিলিয়নে।

এ ছাড়া হাডার্সফিল্ডের কাছে কংগোলোকে ২০ মিলিয়ন ও আদামা দিয়াখাবিকে বিক্রি করা হয়েছে ১০ মিলিয়ন ইউরোতে। জোয়াও মুতিনহোকে ৫.৫ মিলিয়ন ও মেইতাকে ১০ মিলিয়নে বিক্রি করা হয়েছে লেস্টার সিটির কাছে।শেষ সংযোজন আলজেরিয়ান উইঙ্গার রাচিদ গেজাল। লেস্টারসিটির কাছে আলজেরীয় এই উইঙ্গারকে ১৪ মিলিয়ন ইউরোতে বিক্রি করাতেই ৫৫০ মিলিয়ন ইউরোর অবিশ্বাস্য অঙ্কটা ছুঁয়েছে মোনাকো।