শরণখোলায় প্রতিপক্ষের লাথিতে দিনমজুরের মৃত্যু

শরণখোলায় তুচ্ছ ঘটনায় প্রতিপক্ষের লাথিতে মুনসুর হাওলাদার (৩৫) নামের এক দিনমজুরের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বিকেলে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধিন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এ ব্যপারে শুক্রবার (৩০ জুলাই) ময়না তদন্ত শেষে মৃত্যুদেহ শরণখোলায় নিয়ে আসার পর তার স্ত্রী শিউলি বেগম থানায় হত্যা মামলা দায়ের করবেন বলে পুলিশ জানায়।

এলাকাবাসী জানায়, উপজেলার মধ্যে খোন্তাকাটা গ্রামের সোমেদ হাওলাদারের পুত্র দিনমজুর মুনসুর হাওলাদার তার চাচা আলমগীর হোসেনের বাড়ি ও গাছপালা রক্ষনাবেক্ষনের দায়িত্ব পালন করেন। গত ২৭ জুলাই দুপুরে তার দায়িত্বে থাকা একটি নারিকেল গাছ থেকে না বলে কয়েকটি ডাব পারেন একই গ্রামের সমশের হাওলাদারের পুত্র শহিদুল হাওলাদার (৩৭)।

এসময় মুনসুর ডাব পাড়ার প্রতিবাদ করলে উভয়ের মধ্যে হাতাহাতি বেঁধে যায়। এক পর্যায়ে শহিদুল মুনসুরের স্পর্শকাতর স্থানে একটি লাথি মারলে সে অজ্ঞান হয়ে পরে।

সাথে সাথে তাকে শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করার পরে অবস্থার অবনতি ঘটায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধিন অবস্থায় বৃহস্পতিবার (২৯ জুলাই) বিকেলে তার মৃত্যু হয়।

শরণখোলা থানার ওসি মোঃ সাইদুর রহমান জানান, এ ব্যপারে একটি হত্যা মামলার প্রস্তুতি চলছে। আসামি গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

বাবুল দাস/বার্তা বাজার/টি

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর