শরীরে এলার্জি হওয়ায় ৪ ইনজেকশন; রোগীর মৃত্যু, ডাক্তার পলাতক

বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় পল্লী চিকিৎসকের ভুল চিকিৎসায় এক রোগীর মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। শনিবার (২৪ জুলাই) রাতে, উপজেলার জল্লা ইউনিয়নের পিরেরপাড় গ্রামে ওই যুবকের মৃত্যু হয়।

মৃত নিখিল সরকার (৩৬) পিরেরপাড় গ্রামের মৃত নিতাই সরকারের ছেলে। নিখিলের পরিবারের অভিযোগ, স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক বাসুদেব মুহুরির ভুল চিকিৎসার কারণেই নিখিলের মৃত্যু হয়।

নিখিলের স্ত্রী বলেন, তার স্বামী প্রতিদিনের মত শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঘরে আসলে কিছু সময় পরে তার শরীরে এলার্জি দেখা দেয়। তখন পল্লী চিকিৎসক বাসুদেব মুহুরিকে খবর দিলে সে এসে তাকে সাথে সাথে ৪টি ইনজেকশন দেয়। ইনজেকশন দেয়ার কিছু সময় পরই স্বামীর মৃত্যু হয়। এটা দেখে ডাক্তার তার সাথে আনা ব্যাগ গুছিয়ে পালিয়ে যায়।

ওই বাড়ির অন্যদেরও অভিযোগ, ডাক্তারের পিছনে পিছনে ছুটে ডাকাডাকির পরেও ডাক্তার কোন কথা না শুনে বাড়ি থেকে চলে যায়।

মৃত নিখিলের পরিবার জানায়, এ বিষয়ে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে পল্লী চিকিৎসক বাসুদেবের সাথে যোগাযোগ করতে গেলে তার চেম্বার ও মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।

ওই এলাকার বাসিন্দারা আরো অভিযোগ করেন, ওই ডাক্তারের বিরুদ্ধে কিছুদিন আগেও ভুল চিকিৎসার জন্য একটি বাচ্চা মেয়ের মৃত্যু হয়। এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে এই ভুয়া ডাক্তারের বিচার দাবি করেন তারা।

বার্তাবাজার/পি

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর