আজ শুক্রবার সন্ধ্যা ৬:৪২, ১৮ই আগস্ট, ২০১৭ ইং, ৩রা ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জিলক্বদ, ১৪৩৮ হিজরী

মুক্তাগাছায় কিশোরীকে গাড়ীতে আটকে রাতভর ধর্ষণ

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : আগস্ট ১৩, ২০১৭ , ১২:১৭ পূর্বাহ্ণ
ক্যাটাগরি : ময়মনসিংহ
পোস্টটি শেয়ার করুন

বাড়ি থেকে অভিমান করে ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় এসে এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মেয়েটিকে মু্ক্তাগাছা থানা পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত ধর্ষককে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।

থানা পুলিশ জানায়, নিলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া বার বছরের এক মাদ্রাসা ছাত্রী বৃহস্পতিবার তার বাবার সঙ্গে অভিমান করে ময়মনসিংহের একটি গাড়িতে উঠে আসে। শুক্রবার রাতে মেয়েটি গাড়ি থেকে মু্ক্তাগাছায় নামে। এরপর ওই রাতেই মু্ক্তাগাছা থেকে একটি পালকি গাড়িতে চড়ে রাত ১১ টায় ময়মনসিংহ টাউন হল মোড়ে যায়। সেখানে পালকির চালক জয়নাল আবেদীন তাকে ফুচকা খাওয়ায় ও আশ্রয় দেয়ার কথা বলে গাড়ীতে আটকে রাখে। তারপর রাতভর তাকে ধর্ষণ করে।

গতকাল শনিবার সকালে মেয়েটিকে মু্ক্তাগাছা থানার সামনে রেখে পালকির চালক জয়নাল আবেদীন পালিয়ে যায়। পথচারীরা তাকে উদ্ধার করে থানায় পাঠায়। পরে মেয়েটির কথা শুনে থানা পুলিশ পালকির চালক জয়নাল আবেদীনকে আটক করে।

গতকাল দুপুরে থানার ওসির কক্ষে বার বছরের কিশোরী মেয়েটিকে খুব ক্লান্ত দেখাচ্ছিল। এ সময় সে তার শরীরে ব্যথার কথাও নারী পুলিশদেরকে জানিয়েছে।

মু্ক্তাগাছা থানার ওসি আখতার মোর্শেদ বলেন, মেয়েটির কথা শুনে পালকির চালককে আটক করেছি। এর সঙ্গে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা খতিয়ে দেখছি। মেয়ের বাবকে খবর দেয়া হয়েছে। তার বাবা আসলে মেডিক্যাল পরীক্ষা করাতে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে। এরপর ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ওসি জানান, মেয়েটি অভিযোগ করেছে তার সাথে খারাপ কাজ করা হয়েছে।