আজ মঙ্গলবার সকাল ৯:৫৩, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ২রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

আহসান হাবিব পেয়ার, আধুনিক ‘লালসালু’!(ভিডিও)

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : আগস্ট ১২, ২০১৭ , ৬:৪৫ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : আলোচিত খবর
পোস্টটি শেয়ার করুন

পৃথিবীর সৃষ্টিলগ্ন থেকেই মানবতা বিষয়টি চলে এসেছে। মানবতা ছাড়া কোন সমাজ চলতে পারে না। সেই মানবতাকেই পুঁজি করে নিজের স্বার্থ হাসিল করেন অনেকে।

সম্প্রতি আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হওয়া আহসান হাবিব পেয়ার ধর্মের লেবাস ও মানবতাকে ব্যবহার করেই ভয়ঙ্কর প্রতারণা করেছেন।

আহসান হাবীব পেয়ার নামের ওই তরুণ ভণ্ড পীর দরিদ্র অসহায় মানুষকে নিয়ে এবং ধর্মীয় আবেগঘন প্রতিবেদন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ও ইউটিউবে প্রচার করে অর্থ উপার্যন করতো।

পেয়ার অসহায় মানুষের কাছে গিয়ে তাদের সাহায্য করতেন। এখানে সু-কৌশলে তিনি প্রতারণা করতেন। প্রথমে পেয়ার অসহায় মানুষকে সাহায্য করে তা ভিডিও করতেন। আর ওই ভিডিওতে কৌশলে পেয়ার তার মোবাইল নাম্বার ও ব্যাংক অ্যাকাউন্টে এবং বিকাশ নাম্বার প্রচার করতেন। সাধারণ দানশীল মানুষ ওই অসহায় ব্যক্তির ভিডিও দেখে আহসান হাবিব পেয়ারের সঙ্গে যোগাযোগ করে ইউটিউবে প্রকাশিত বিকাশ নাম্বার ও ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সাহায্য পাঠাতেন কিন্তু পেয়ার ওই টাকা অসহায় ব্যক্তিকে না দিয়ে নিজের পকেট ভারী করতেন।

সম্প্রতি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল যমুনা টিভি ভণ্ডপীর হাবিবকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছেন সেখানে দেখা গেছে, ভণ্ডপীর পেয়ার বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে ১ কোটিরও বেশি টাকা নিয়ে মাত্র ২ লাখ ৭৬ হাজার টাকা অসহায় ব্যক্তিদের সাহায্য করেছেন।

অন্যদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের জনপ্রিয়তাকে কাজে লাগিয়ে বেশ কয়েকজন তরুণীর সঙ্গে তৈরি করেন প্রেমের সম্পর্ক। এক পর্যায়ে তাদের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করে তা ভিডিওতে ধারণ করেন। এরপর সংশ্লিষ্ট তরুণীদেরকে ব্ল্যাকমেইল করে টাকা আদায় করতেন এই ভণ্ডপীর।

তরুণী থেকে শুরু করে গৃহবধূরাও রক্ষা পায়নি পেয়ারের প্রতারণা থেকে। তার সুন্দর চেহারা ও মিষ্টি কথার ফাঁদে পড়ে তরুণী ও নারীরা আকৃষ্ট হয়ে অভিসারে মিলিত হয়েছেন অনেকে। এই অভিসারের অন্তঃরঙ্গ মূহুর্তগুলো ভিডিও করে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করতেন এই ভণ্ডপীর।

এছাড়াও তিনি নারীদের নিয়ে বড় ধরণের ব্যসায় প্ল্যানও করেছিলেন। তবে এই ব্যবসা শুরু করার আগেই পুলিশের হাতে আটক হন তিনি।

এছাড়াও জিন ছাড়ানোর নামেও নারীদের খুব বাজেভাবে স্পর্শ করতো পেয়ার। জিন ছাড়ানোর প্রতারণা করেও মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিতেন তিনি।

কয়েকজন ভুক্তভোগীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে এ বিষয়ে অনুসন্ধান চালায় যমুনা টিভি। ভণ্ডপীর পেয়ারের সকল অনৈতিক কর্মকাণ্ড ফুটে উঠেছে যমুনা টিভির ৩৬০ ডিগ্রী অনুষ্ঠানে চলুন পাঠক পেয়ারের প্রতারণার বিষয়গুলো আমরা সেখান থেকে দেখে নিই।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন….