শুর পাল্টালেন রশিদ, যা শুনে আপনারা বেশ খুশিই হবেন

দ্বাদশ বিশ্বকাপে প্রথম দল হিসেবে গতকাল টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়েছে আফগানিস্তান। নিজেদের ষষ্ঠ ম্যাচে ভারতের কোছে ১১ রানে হেরে এবারের জন্য বিদায় নেয় রশিদ-নবীর আফগান।ইংল্যান্ডের বিমান ধরার আগে নিজেরাই নিজেদের‘হরো’ ভেবেছিলেন।কিন্তু ইংল্যান্ডের মাটিতে ময়দানী লড়াইয়ে নেমে রশিদরা দেখলেন সম্পূর্ণ মুদ্রার উলটোপিট।ভরাত ছাড়া কোন দলের সঙ্গে বলার মতো লড়াইও করতে পারেনি আফগানরা।আসরে একমাত্র জয়হীন দলও তারা। বলার মতো নেই কোনো ক্রিকেটারের ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সও।

আফগানিস্তানের মতো বাজে সময় কাটাচ্ছেন দলের সেরা বোলিং অলরাউন্ডার রশিদ খানও। বিশ্বকাপের আগে সাকিব আল হাসানের কাছে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের মুকুট হারানো এই লেগি এখন পর্যন্ত ৬ ম্যাচ খেলে শিকার করেছেন মোটে ৪ উইকেট। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে রান খরচায় গড়েছেন লজ্জার বিশ্বরেকর্ড। রুট- মরগ্যানদের বিপক্ষে ৯ ওভার বল করে ১১০ রান খরচ করেন তিনি। বিনিময়ে কোনো উইকেটের দেখা পননি বল হাতে ক্রিকেকেটের বিস্ময় খ্যাত এই ক্রিকেটার। তিনি সে দিন যা করেছেন, তা বিশ্বকাপ ইতিহাসে সবচেয়ে খরুচে বোলিং। আর পুরো ওয়ানডে ইতিহাসে দ্বিতীয়।

রশিদ খান মনে করেন দলের এই ব্যর্থতার পেছনে প্রধান দায়, তাদের যথেষ্ট প্রস্তুতির অভাব। বিশ্বকাপ শুরুর আগে দলের প্রধান নির্বাচক নিজেদের শেষ চারে দেখলেও রশিদ বলেছেন, ‘আমার মনে হয় না আমরা এই টুর্নামেন্টের জন্য যথাযথ প্রস্তুত। এটা অনেক বড় এক মঞ্চ। এখানে উত্থান-পতন আছে। কিন্তু আমরা এখান থেকে অনেক কিছু শিখেছি। আমাদের এক বা দুই ম্যাচ জেতা উচিত ছিল। আমাদের সামনে সেই সুযোগ এসেও ছিল। কিন্তু আমাদের অভিজ্ঞতার অভাবে আমরা হেরে গেছি। আশা করছি, সময়ের পরিক্রমায় আমরা তা অর্জন করবো।’

বার্তাবাজার/এএস

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর