আজ বুধবার বিকাল ৩:০০, ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং, ১৪ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৩রা শাওয়াল, ১৪৩৮ হিজরী

মালিককে ‍সুবিধা করতে দিলেন না ভুবনেশ্বর

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : জুন ১৮, ২০১৭ , ৬:৩৯ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : আন্তর্জাতিক
পোস্টটি শেয়ার করুন

ভারতের কেরালা রাজ্যের বালুসেরি শহরে জন্ম নিয়েছে চোখবিহীন এক ছাগলছানা। সেটির ঠোঁটও স্বাভাবিক নয়। অনেকটা মানুষের মতো। স্থানীয় বাসিন্দারা ছাগলের বাচ্চাটিকে ‘শয়তান’ বলে আখ্যায়িত করেছেন।
শুধু স্থানীয়রাই নয়, ছাগলছানাটির জন্মের পর চমকে ওঠেন সেটির মালিক ভি চন্দ্রও। এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে ওই ছানাটিকে মেরে ফেলার দাবি করা হয়। কিন্তু এ দাবি মানতে নারাজ চন্দ্রর স্ত্রী। তাঁর আবদার, আর দশটি ছানার সঙ্গে সেটিকেও পালবেন তিনি।

স্বাভাবিকের চেয়ে বড় ওই ছাগলছানাটিকে নিজ হাতেই লালন-পালন করছেন চন্দ্র দম্পতি। এ বিষয়ে চন্দ্র বলেন, ‘আমরা কয়েক প্রজন্ম ধরে গবাদি পশু পালন করে আসছি। তবে এমন কিছু কোনোদিন দেখিনি।’
‘আমার প্রতিবেশীরা শয়তান বলে আখ্যায়িত করে এবং সেটিকে মেরে ফেলতে বলে। কিন্তু আমার স্ত্রী বাধা দিয়ে ছানাটিকে বাঁচায়।’
এদিকে সাধারণ মানুষ ছানাটিকে শয়তান বলে দাবি করলেও পশুচিকিৎসকরা বলছেন অন্য কথা। তাঁরা জানিয়েছেন, জন্মের আগে শরীরে জিনগত ত্রুটির কারণেই ছাগলছানাটির চোখ সৃষ্টি হয়নি। চিকিৎসার ভাষায় এটিকে অ্যানোফথালমিয়া বলা হয়। সাধারণত ক্ষতিকর এক্স-রে, রাসায়নিক অথবা ভাইরাসের কারণে অ্যানোফথালমিয়া হয়ে থাকে।

Add Space