আজ মঙ্গলবার ভোর ৫:৫৫, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ২রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৫শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

বাবাই জানেন না, আজ বাবা দিবস

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : জুন ১৮, ২০১৭ , ৪:৩২ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : জীবনযাত্রা
পোস্টটি শেয়ার করুন

মা দিবস পালনের পর থেকে বাবা দিবসও পালনের প্রথাটি বেশ জমে উঠেছে। বাবা দিবসের রীতি প্রথম চালু হয় আমেরিকায়, সেখান থেকে আস্তে আস্তে এই রীতি পালন হওয়া শুরু হয় অন্যান্য দেশেও। সুধু পালন হওয়া বল্লেও ভুল হবে, বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠে। আমাদের দেশ ও তার বাহিরে যেতে পারে নাই।

অনেক বাবা হয়তো জানেন না বাবা দিবস বলতে কোন দিবস আছে এই পৃথিবীতে। বাবারা হচ্ছে প্রতিটি সন্তানের ছায়া এর আবার দিবস কিসের এমন ভাবেই নিজের আবেগ প্রকাশ করলো বর্তমান প্রজন্মের এক বাবা।

তিনি বলেন, আমি আগে বুঝতে পারতাম না, তাই হয়তো অনেক সময় এই দিবসটাকে মেনে নিতাম। আসল কথাতো ফেসবুকের কল্যাণে জানতে পারি কোন দিন বাবা দিবস।

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্র আদর হাসান তার স্ট্যাটাসে বলেন, আমার কাছে প্রতিটা দিন বাবা দিবস। আমিতো জানতামই না আজ যে বাবা দিবস। ফেসবুকের কল্যাণে সাধারণ মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পরে এই দিবসটি। অনেকে বলেন স্ট্যাটাস না দিয়ে বাবাকে বলো, বাবা তোমাকে অনেক ভালবাসি। বাবা খুশি হবে।

এই বাবা দিবসকে প্রতিষ্ঠার জন্য যাকে সবচেয়ে বেশি কৃতিত্ব দেওয়া যায়, তিনি হলেন সোনোরা ডড। তাঁর পুরো নাম সোনোরা লুইস স্মার্ট ডড। তবে জন্মকালে তাঁর নাম ছিল জেনি লিন্ড। জন্মস্থান আমেরিকার আরকানসাস স্টেটে, যেখানে এককালে আজকের বিখ্যাত ক্লিনটন পরিবার বাস করত।