আজ বুধবার সন্ধ্যা ৭:০৭, ১৬ই আগস্ট, ২০১৭ ইং, ১লা ভাদ্র, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জিলক্বদ, ১৪৩৮ হিজরী

সৌম্যকে বাদ দেওয়া নিয়ে যা বললেন মাশরাফি

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : জুন ১৭, ২০১৭ , ৭:৩৬ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : খেলাধুলা
পোস্টটি শেয়ার করুন

২০০০ সালে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার এক যুগ পরও ক্রিকেটবিশ্বে ছোট দল হিসেবেই পরিচিত ছিল বাংলাদেশ। তবে ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের পরই বদলে যায় পরিস্থিতি। ধীরে ধীরে খোলস থেকে বের হয়ে আসতে থাকেন ক্রিকেটাররা। বড় বড় দলকে পরাভূত করে ক্রিকেটবিশ্বে সম্মানজনক অবস্থায় চলে এবারের চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতেও অসাধারণ খেলে সেমিফাইনালে ওঠে মাশরাফির দল। আগের সিরিজগুলোতে সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, মুস্তাফিজুর রহমানের মতো তরুণরা ভালো খেললেও চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে তাঁরা বেশ নিষ্প্রভ ছিলেন। সেমিফাইনালে ভারতের বিপক্ষেও ভালো কিছু করতে ব্যর্থ হন তাঁরা। এর পর থেকেই আঙুল উঠতে শুরু করেছে তরুণ ক্রিকেটারদের ওপর। তবে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা সেমিফাইনালে হারের কারণে কারো ওপর আঙুল তুলতে নারাজ।

ভারতের বিপক্ষে সেমিফাইনালে হারের পর চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে খারাপ পারফর্ম করা ক্রিকেটারদের বাদ দেওয়া হবে কি না, মাশরাফির উদ্দেশে এমন প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। তবে ম্যাশ জানিয়ে দিলেন, এমন কোনো ইচ্ছা নেই তাঁর। মাশরাফি বলেন, ‘এটা নির্ভর করছে টিম ম্যানেজমেন্টের ওপর। আর তা ছাড়া এদের মতো ক্রিকেটার আমাদের দেশে কতগুলো আছে, সেটাও ভাবতে হবে। কয়েক বছর ধরে এরাই সফল ছিল। তিন-চার বছর ধরে এরা ভালো খেলছে। এই টুর্নামেন্টে যারা খারাপ করেছে, তাদের ফিরে আসাটা জরুরি। আমার মনে হয়, এদের ওপর বিশ্বাস রাখলে সামনের বিশ্বকাপে তাঁরা আরো ভালো করবে। আর তা ছাড়া এত বাছবিচার না করে এদের ওপরই ভরসা রাখা উচিত। কয়েক বছর ধরে তারা ভালো খেলছে। একটা টুর্নামেন্টে খারাপ করলেই বাদ দিতে হবে, এমনটা মনে করি না আমি।’

তরুণদের পারফরম্যান্সে অধিনায়ক হতাশ কি না এমন প্রশ্নের জবাবে মাশরাফি বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা সফরে এই তরুণরা ভালো খেলেছে, আয়ারল্যান্ড সফরেও তেমনটি। এখানে এসে মানসিকভাবে হয়তো কিছুটা পিছিয়ে গেছে। তবে এর পরের আসরগুলোতে তারা যদি ভুলগুলো শুধরে নেয়, এ ধরনের পরিস্থিতিতে কীভাবে খেলতে হয়, এটা বুঝে নেয় তাহলে সমস্যা হওয়ার কথা নয়। আর তা ছাড়া আমাদের হাতে তেমন বেশি ক্রিকেটারও নেই, যারা এদের জায়গা নিতে পারে।’

এই তরুণ ক্রিকেটাররা আরো অভিজ্ঞ হলে এই ধরনের ম্যাচে বাংলাদেশ আর ম্যাচ হারবে না মনে করছেন মাশরাফি। তিনি বলেন, ‘সাকিব যখন খারাপ করছিল, তখন তাঁকে নিয়ে কথা উঠেছিল, এমনকি শ্রীলঙ্কা সফরে রিয়াদের বিষয়েও কথা হচ্ছিল। তবে এখানে সিনিয়ররাই ভালো খেলেছে। এই তরুণরা আরো অভিজ্ঞ হলে পরবর্তী বিশ্বকাপে ভালো করবে বাংলাদেশ।