২৪, মে, ২০১৮, বৃহস্পতিবার | | ৯ রমজান ১৪৩৯

৪০ বছর পর ইউটিউবের কারণে স্বজনদের ফিরে পেলেন সেনাসদস্য

আপডেট: এপ্রিল ২০, ২০১৮

৪০ বছর পর ইউটিউবের কারণে স্বজনদের ফিরে পেলেন সেনাসদস্য

নিখোঁজ হওয়ার ৪০ বছর পর ইউটিউব ভিডিওর মাধ্যমে সাবেক একজন ভারতীয় সেনাসদস্য হাজারো মাইল দূরে তার স্বজনদের দেখা পেয়েছেন। ১৯৭৮ সালের দিকে খোমদ্রাম গাম্ভীর সিং নামের ওই সেনাসদস্য হঠাৎ করেই নিখোঁজ হয়ে যান। সেসময় তার বয়স ছিল ২৬ বছর বয়স।

তার বাড়ি ভারতের মনিপুর রাজ্যের রাজধানী ইমফলে। নিখোঁজ হওয়ার ৪০ বছর পর তার খোঁজ পাওয়া গেছে। তাকে সর্বশেষ মুম্বাইয়ে দেখা গেছে। এখন তার বয়স ৬৬ বছর।

প্রথমে খোমদ্রাম গাম্ভীর সিংয়ের এক ভাতিজা ইউটিউবে একটি ভিডিও দেখে তাকে চিনতে পারেন। ফিরোজ শাকরি নামের একজন ফটোগ্রাফার মুম্বাইয়ের রাস্তায় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ভিডিও করেছিলেন। তিনি অনেক ছবিও তুলেছিলেন।
এই ফটোগ্রাফার তার ভিডিওগুলো ইউটিউবে প্রকাশ করলে তা ভাইরাল হয়।

ভিডিওতে দেখা যায়, পরিবার থেকে নিখোঁজ হওয়া খোমদ্রাম গাম্ভীর সিং পুরোনো দিনের হিন্দি গান গেয়ে রাস্তায় ভিক্ষা করছেন। তার ভাতিজা ইউটিউবে সেই ভিডিও দেখে তাকে চিনতে পেরে অন্য স্বজনদের জানান। তখন স্বজনরা মনিপুরের ইমফল পুলিশের সাথে যোগাযোগ করেন।

খোমদ্রাম কুলাচন্দ্রা তার ভাই গাম্ভীর সিংয়ের ছবি পুলিশকে দেন। সেই ছবি নিয়ে ইমফলের পুলিশ যোগাযোগ করে মুম্বাইয়ের পুলিশের সাথে। মুম্বাই পুলিশ ওই ছবিকে ভিত্তি করে খোমদ্রাম গাম্ভীর সিংকে খুঁজে বের করে।

পুলিশ তাকে মুম্বাইয়ের যে এলাকা থেকে উদ্ধার করেছে, সেখানে তিনি মানবেতর জীবন যাপন করতেন। পুলিশ পরিদর্শক পন্ডিত ঠাকরে বিবিসিকে বলেন, আমরা তাকে মুম্বাইয়ের বান্দ্রা এলাকার একটি রেলস্টেশনের বাইরে খুঁজে পাই। তার অবস্থা খুব খারাপ ছিল।

যুবক বয়সে নিখোঁজ হওয়ার ৪০ বছর পর বৃদ্ধ অবস্থায় পরিবারের কাছে ফিরে গেছেন বৃহস্পতিবার খোমদ্রাম গাম্ভীর সিং। তার ভাই খোমদ্রাম কুলাচন্দ্রা দ্য হিন্দু পত্রিকাকে বলেন, আমার এক ভাতিজা যখন আমাকে ভিডিওটি দেখায়, আমি তখন নিজের চোখকে বিশ্বাস করতে পারছিলাম না।আমরা তাকে ফিরে পাওয়ার সব আশা ছেড়েই দিয়েছিলাম।

তিনি আরও জানান, তার ভাই খোমদ্রাম গাম্ভীর সিং ভারতের সেনাবাহিনীতে সৈনিক পদে চাকরি করতেন এবং ১৯৭৮সালে বিয়ে করার এক মাস পরই বাড়ি ছেড়ে নিখোঁজ হন। তখন অনেক খোঁজ করার পর স্বজনরা তাকে ফিরে পাওয়ার আশাই ছেড়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু দীর্ঘ চারযুগ পর অবশেষে তাকে ফিরে পাওয়া গেছে