কি কারণে সরকারি আশ্রয়ণের ঘর পাননি তা জানেন না ভোলার বৃদ্ধ দম্পতি

ভোলা সদর উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের চর কন্দকপুর গ্রামে স্থানীয় চৌকিদারের পরিত্যক্ত জমিতে ছোট্ট একটি ঝুপড়ি ঘর তুলে কোনোমতে মানবেতর জীবনযাপন করছেন অসহায় হতদরিদ্র বৃদ্ধ দম্পতি মান্নান মাঝী ও জহুরা খাতুন।

বৃদ্ধ এই দম্পতিদের দুই ছেলে ও তিন মেয়ে রয়েছে। মেয়েদের বিয়ে হয়ে যাওয়ায় তেমন একটা খোঁজখবর রাখছেন না কেউই। তবে দুই পুত্র সন্তান থাকলেও তারাও এখন বিয়ে করে রয়েছেন অন্যত্র।

বৃদ্ধ দম্পতি জানান, তাদের দুজনের একজনেরও বয়স্ক ভাতা নেই। একাধিকবার স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা বয়স্ক ভাতা ও ঘরের নাম নিলেও কি কারনে ভাতা ও ঘর থেকে বঞ্চিত তা জানা নেই তাদের। স্থানীয়দের সামান্য কিছু সহযোগিতায় মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা।

অশ্রুশিক্ত চোখে বৃদ্ধ দম্পতি জানান, সরকারি আশ্রয়ণ প্রকল্পের একটি ঘর পেলেই কিছুটা হলেও ভালো থাকবেন তারা। তাই স্থানীয় প্রশাসকসহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট একটি সরকারি ঘরের জন্য আকুতি জানান বৃদ্ধ এই দম্পতি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মিজানুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে জানান।

বার্তা বাজার / ডি.এস

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর