আজ মঙ্গলবার সকাল ৬:১৭, ১৭ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং, ২রা কার্তিক, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৬শে মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী

আঁখির মনির মুখে হাসি নেই গোল্ডেন এ প্লাস পেয়েও !

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : মে ১০, ২০১৭ , ১০:৫১ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : সফলতার গল্প
পোস্টটি শেয়ার করুন

টাকার অভাবে কলেজে ভর্তি অনিশ্চিত হওয়ায় এসএসসিতে গোল্ডেন এ প্লাস পেলেও হাসি নেই লালমনিরহাটের আঁখি মনির মুখে। কলেজে ভর্তি হওয়ার টাকা নেই আঁখির মায়ের কাছে। ফলে মনের মাঝে পুষে রাখা ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন বিলীন হতে চলেছে তার। টাকার অভবে আঁখির স্বপ্ন পূরণের পথে রয়েছে নানান বাধা।
আঁখি লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী দ্বি-মুখী উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবার এসএসসিতে গোল্ডন এ প্লাস পেয়েছে। মাকে নিয়ে আঁখি মধ্য গড্ডিমারী গ্রামের সফিয়ার রহমানের বাড়িতে আশ্রিত থাকে।

সরেজমিনে জানা গেছে, আঁখি মায়ের সাথে পুরাতন কাপড় সেলাই করে এবার এসএসসিতে গোল্ডন এ প্লাস পেয়েছে। মা জয়নব নেছা বাড়ির পার্শ্বে বাজারে পুরাতন কাপড় সেলাই করে সংসার চালায়। চিকিৎসার অভাবে অকালে বাবাকে হারানোর কষ্ট নিয়েও আঁখি ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন লালন করছে। সেই স্বপ্ন পূরণের পথে রয়েছে সংশয় ও নানা বাধা। তারপরও এগিয়ে যেতে চায় আঁখি।

আঁখি বলে, যত বাঁধাই হোক, আমি এগিয়ে যেতে চাই। আমার মত আর কেউ যেনো চিকিৎসার অভাবে বাবাকে না হারায়। সেই লক্ষেই আমাকে এগিয়ে যেতে হবে। কিন্তু লেখাপড়া করার টাকা কই পাবো? বড় ভাই বোনদের মুখে শুনেছি বিভিন্ন ব্যাংক বিমা উপ-বৃত্তি দেয়। ব্যক্তিগত পর্যায়ে অনেকে এগিয়ে আসে। কিন্তু আমার জন্য কেউ এগিয়ে আসে নাই। আমাকে মনে হয় শেষ পর্যন্ত গার্মেন্টস চাকুরি করতে হবে।

আঁখির মা জয়নব নেছা বলেন, বাড়ির পার্শ্বে গড্ডিমারী হাটে পুরাতন কাপড় সেলাইয়ের একটি দোকান আছে আমার। এখান থেকে প্রতিদিন যা আয় হয় তা দিয়ে দুই মেয়েকে নিয়ে কোন রকম বেঁচে আছি। মেয়ের ইচ্ছা পূরনের ইচ্ছা আমার থাকলেও সামর্থ নেই। মেয়েকে কলেজে ভর্তি করার টাকাও আমার কাছে নেই। কিভাবে ভর্তি করাব সেই চিন্তা আমাকে কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে। এখন পর্যন্ত কোন সহযোগীতা পাইনি।

ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আতোয়ার রহমান বলেন, মেয়েটি পিএসসি ও জেএসসিতে গোল্ডন এ প্লাস ও বৃত্তি পেয়েছে। সুযোগ পেলে সে তার কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌছতে পারবে। এত কিছুর মাঝেও এগিয়ে যেতে চলছে আঁখি মনি’র নিরন্তর চেষ্টা।

হাতীবান্ধা উপজেলার গড্ডিমারী ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য আব্দুল লতিফ বলেন, আঁখি মনি অত্যান্ত মেধাবী কিন্তু গরীব। তার মা অন্যের বাড়িতে আশ্রিত। আমার বিশ্বাস সহযোগীতা পেলে সে তার স্বপ্ন পূরন করতে পারবে বলে মনে কনে তিনি।