বগুড়া জেলখানা মাদকের স্বর্গরাজ্য: হিরো আলম

বগুড়া জেলখানা এখন মাদকসেবীদের স্বর্গরাজ্য। সদ্য জেল হাজত থেকে মুক্ত হয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের আলোচিত সেলিব্রেটি হিরো আলম জানান এ কথা। গত শুক্রবার বগুড়া অফিসে একান্ত সাক্ষাতকারে জানান জেলখানার অনিয়ম দুর্নীতির কথা।

হিরো আলম বলেন, বগুড়া জেলখানা এখন মাদকাসক্তদের দখলে। জেলখানার ভেতরে পাওয়া যায় সব ধরনের মাদক। এখনকি মাদক দিয়ে অর্থের বিনিময় হয়। বিড়ি, সিগারেট, গাঁজা দিয়ে সব কাজ করে নেওয়া যায়। জেলাখানায় প্রতিদিন যে দুই হাজারের মতো হাজতি কয়েদি থাকে। এর মধ্যে পনেরো’শ ই মাদক সংশ্লিষ্ট মামলায়। আর এসব আসামি জেলখানার ভেতরই মাদকের ব্যবহার ও ব্যবসা করে যাচ্ছে। এছাড়া দুর্নীতি রয়েছে টাকার বিনিময়ে কাগারের ভেতর হাসপাতালে জায়গা করে দেওয়া। প্রতিমাসে হাসপাতালের জন্য তিন হাজার টাকা দিতে হয়, একজন হাজতি কিংবা কয়েদিকে।

এছাড়া দর্শনার্থীদের কাছ থেকে টাকা নিয়ে সময় অসময় দেখার সুযোগ করে দেওয়া হয়। হিরো আলম জেলখানার ভালো দিকও তুলে ধরেন। খাবার মান আগের চেয়ে ভালো হয়েছে। এছাড়া টাকা দিলে ক্যানটিন থেকে খাবার পাওয়া যায় বলে জানান।

বগুড়ার সেলিবেটি হিরো আলমের বিরুদ্ধে গত ৬ মার্চ তার শ্বশুর সাইফুল ইসলাম তার মেয়েকে নির্যাতনের অভিযোগ এনে বগুড়া সদর থানায় মামলা করেন। ৭ মার্চ তাকে পুলিশ গ্রেফতার করে এবং ১৮ এপ্রিল তার জামিন হয়।

সময় সংবাদ

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর