অধিকাংশ মোটরবাইক চালক জানেন না, ‘থার্টপার্টি ইন্স্যুরেন্স সম্পর্কে

দেশের এক চতুর্থাংশ দুর্ঘটনা ঘটে মোটরসাইকেলে। অথচ আইনি দায় মেটাতে অধিকাংশ চালক থার্ড পার্টি ইন্স্যুরেন্স এর আশ্রয় নেয়ায় দুর্ঘটনার শিকার ব্যক্তি ও পরিবার পাচ্ছে না কোন ক্ষতিপূরণ। এমনকি বেশিরভাগ চালক জানেনই না কেন এই ইন্স্যুরেন্স, কি এর কার্যকারিতা। বীমা সংশ্লিষ্টরা বলছেন, একটু সচেতন হলেই দুর্ঘটনার ক্ষতি কমিয়ে আনা যায় অনায়াসে।

যানজটের রাস্তায় সারিবদ্ধ মোটর সাইকেল এখন পরিচিত দৃশ্য। ঝক্কি এড়াতে ও সময় বাঁচাতে নগরবাসীর মাঝে বাড়ছে এ দ্বিচক্রযানের ব্যবহার। তবে আসলে কতটা নিরাপদ অপেক্ষাকৃত দ্রুতগামী হিসেবে পরিচিত এ বাহন?

যাত্রী কল্যাণ সমিতির হিসেবে, ২০১৮ সালে দেশে মোট দুর্ঘটনার চার ভাগের একভাগই মোটর সাইকেল দুর্ঘটনা। আর বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এসব দুর্ঘটনায় হতাহত হয়েছে মোটরসাইকেল চালক ও আরোহী। নিয়ম থাকলেও দুর্ঘটনার ক্ষতি পুশিয়ে নেয়ার মতো বীমা করেন না কোন মোটর সাইকেল চালক। এমনকি রাস্তায় চলাচলের জন্য নামমাত্র বীমা বা থার্ডপার্টি বীমা করা থাকলেও চালকরা জানেন না এ বীমার কার্যকারিতা সম্পর্কে।

রাস্তায় দায়িত্বরত পুলিশ সদস্যরা বলছেন, দায়িত্বের অংশ হিসেবে তারা কেবল ইন্স্যুরেন্সের মেয়াদ ও অন্যান্য তথ্য মিলিয়ে দেখেন।

বীমা সংশ্লিষ্টরা বলছেন, রাস্তায় পুলিশী হয়রানি থেকে বাঁচতে নামমাত্র ‘থার্ড পার্টি ইন্স্যুরেন্স করে দেয় মোটরসাইকেল বিক্রেতারা। তাই এসব ইন্স্যুরেন্স মূলত কোন প্রতিকার দিতে পারে না দুর্ঘটনায়।

সাধারণ বীমা কর্পোরেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৈয়দ শাহরিয়ার আহসান বলেন, থার্ড পার্টির একটা কম্পেন্সেশন রয়েছে, যেমন একটা লোক মারা গেলে মাত্র বিশ হাজার টাকা। আমরা প্রপোজ করেছি যে এই রেটটাকে বাড়াতে হবে।

প্রগতি লাইফ ইন্স্যুরেন্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. জালালূল আজীম বলেন, থার্ড পার্টিটা শুধু লায়াবিলিটি। অর্থাৎ আপনি গাড়ি চালাচ্ছেন এই গাড়ি দিয়ে যদি অন্যের কিছু ক্ষতি করেন তাহলে আপনার উপর কিছু দায় বর্তায়। এই দায়টা মিট করার জন্য থার্ড পার্টিটা কাভার করে।

তবে, বীমা দাবি পূরণের ক্ষেত্রে বীমা কোম্পানিগুলোকে আন্তরিক হওয়া ও যে কোন অভিযোগের সুষ্ঠু তদন্ত হওয়া উচিত বলেও মনে করেন তারা।

বার্তা বাজার .কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
এই বিভাগের আরো খবর