পাহাড়ি ঢলে ভেস্তে যেতে বসেছে ঈদ আনন্দ [ভিডিও]

ভারী বর্ষণ আর উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে বেশ কয়েকটি নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

ফেনী ও মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে প্রতিরক্ষা বাঁধের কয়েকটি জায়গায় দেখা দিয়েছে ভাঙন। পানিবন্দী হয়ে পড়েছে কয়েক হাজার মানুষ। তবে কিছুটা উন্নতি হয়েছে পার্বত্যাঞ্চলের বন্যা পরিস্থিতি।

মৌলভীবাজারের মনু ও ধলাই নদীর পানি ১১ ফুট বৃদ্ধি পেয়ে বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। পাহাড়ি ঢলে আজ ভোরে মনু নদীর কুলাউড়ার ৩টি এলাকায় ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে।

এদিকে কমলগঞ্জের পুরাতন প্রতিরক্ষা বাঁধ ও ধলাই নদীর বাঁধ ভেঙ্গে যাওয়ায় পানিবন্দী হয়ে পড়েছে কয়েক হাজার মানুষ।

ফেনীর মুহুরী নদীর পানি বৃদ্ধি ও ফুলগাজী অংশে প্রতিরক্ষা বাঁধের দুটি স্থানে ভাঙন শুরু হওয়ায় ফুলগাজী ও পরশুরামের ১০টি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে।

এদিকে হবিগঞ্জে খোয়াই নদীর পানি বিপদসীমার ১৭০ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বাংলাদেশের প্রবেশমুখে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ গেইট খুলে দেয়ায় পানি আরও বাড়তে পারে বলে আশংকা করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

খাগড়াছড়ির চেঙ্গী নদীর পানি কমতে শুরু করলেও নিম্নাঞ্চল এখনও পানির নিচে।

অপরদিকে পানি সরে যাওয়ায় সকাল থেকে বান্দরবান-চট্টগ্রাম ও বান্দরবান-রাঙামাটি মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।

You might also like