আজ বৃহস্পতিবার রাত ২:৪৯, ২৯শে জুন, ২০১৭ ইং, ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ৩রা শাওয়াল, ১৪৩৮ হিজরী

শিরোনাম

অধিকাংশ বিও আইপিও হান্টারদের দখলে

নিউজ ডেস্ক | বার্তা বাজার .কম
আপডেট : মার্চ ১২, ২০১৭ , ২:৫১ অপরাহ্ণ
ক্যাটাগরি : শেয়ার নিউজ
পোস্টটি শেয়ার করুন

শেয়ারবাজারে প্রায় ৯০ শতাংশ বেনিফিশিয়ারি ওনার্স (বিও) অ্যাকাউন্ট পরিচালিত করা হয় শুধু মাত্র প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) আবেদনের জন্য। গত ৯ মার্চ পর্যন্ত সর্বশেষ হিসাব অনুযায়ী ২৯ লাখ ৫৫ হাজার ৮০১ বিও অ্যাকাউন্ট সিডিবিএল সিস্টেমের সঙ্গে সংযুক্ত থাকলেও  মাত্র ১০ শতাংশ অ্যাকাউন্ট পুঁজিবাজারের লেনদেনে অংশগ্রহণ করেন। সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

বর্তমানে মোট বিও হিসাবের মধ্যে মাত্র ৩ লাখ ১৮ হাজার অ্যাকাউন্ট স্টক এক্সচেঞ্জে সচল রয়েছে। বাকী ২৬ লাখ ২৭ হাজার ৮০১  বিও অ্যাকাউন্ট বিনিয়োগকারীদের আইপিও-তে অংশগ্রহণ করে। যা নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের অনুসন্ধানে উঠে এসেছে।

তথ্যানুযায়ী, ৩ লাখ ১৮ হাজার বিও অ্যকাউন্ট বা বিনিয়োগকারী লেনদেনে অংশগ্রহণ করে, এর মধ্যে অর্ধেক বিনিয়োগকারী মাসে ১ লাখ টাকা উপরে শেয়ার লেনদেন করে। অর্থাৎ ১ লাখ ৪৬ হাজার ৯০০ বিও-তে ১ লাখ টাকা উপরে শেয়ার লেনদেন হয়। তবে গত বছরের ডিসেম্বর মাসে বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি ফেব্রুয়ারির তুলনায় বেশি ছিল।

বিএসইসির তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে ২ লাখ ৭৯ হাজার বিনিয়োগকারী তাদের বিও অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে পুঁজিবাজারে লেনদেনে অংশগ্রহণ করে এর মধ্য মাত্র  ১ লাখ ৩২ হাজার বিনিয়োগকারী ১ লাখ টাকা উপরে শেয়ার লেনদেন করে।

তথ্য আরো জানায়, ২০১৬ সালে জুন মাসে বাজার যখন তুলনামুলক নিস্তেজ ঠিক তখনও ২ লাখ ৩০ হাজার বিও অ্যাকাউন্টধারী অংশগ্রহণ করেছিলো।

এ বিষয়ে কিছু অপারেটর কর্মকর্তা বলেন, বিও অ্যাকাউন্টের তুলনায় বিনিয়োগকারীদের উপস্থিতি কম হওয়ার কারণ হলো সব অ্যাকাউন্ট পরিচালন করা হয়নি সেকেন্ডারী মার্কেটে।

তারা আরো বলেন, এক বিনিয়োগকারী হিসেবে তার বিও অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে আইপিও শেয়ারের জন্য একটি আবেদন জমা দিতে পারেন। তাই কিছু আইপিও শিকারী হিসেবে পরিচিত বিনিয়োগকারী তাদের বিও অ্যাকাউন্ট খুলে রাখে তাদের ঘনিষ্ঠ আত্মীয়-স্বজন বা পরিবারের সদস্যদের নামে । যা দিয়ে তারা শুধু আইপিও ধরে থাকে।

 

Add Space